আইপিএলের প্রথম ম্যাচেই রুদ্ধশ্বাস লড়াই

সংগ্রহীত

আইপিএলের প্রথম ম্যাচেই রুদ্ধশ্বাস লড়াই

আইপিএলের ১৪তম এবারের আসরের প্রথম ম্যাচেই শ্বাসরুদ্ধকর এক লড়াই উপভোগ করলেন দর্শকরা। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের ছুঁড়ে দেওয়া ১৬০ রান তাড়া করতে নেমে শেষ ওভারের শেষ বলে এক রান নিয়ে ২ উইকেটের ব্যবধানে ম্যাচ জিতে নেয় বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

মার্কো জ্যানসেনের শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৭ রান। ৩ বলে ৪ রান তোলার পর চতুর্থ বলে ২ রান নিতে গিয়ে রান আউট হয়ে যান এবি ডিভিলিয়ার্স। দল তখন ৮ উইকেটে ১৫৮ রানে দাঁড়িয়ে। ফলে বিরাটের দলকে জিততে হলে ২ বলে ২ রান করতে হত। আর রোহিতের দরকার ছিল ২ বলে ২ উইকেট।

পঞ্চম বলে সিরাজ মাথা ঠান্ডা রেখে ১ রান নেন। এরপর শেষ বলে এল জয়। ওভারের শেষ বলে ১ রান নিয়ে বিরাট কোহলির দলকে প্রথম ম্যাচেই জয় এনে দিলেন ২৭ রানে ৫ উইকেট নেওয়া হর্ষল প্যাটেল। ফলে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ২ উইকেটে জয় পেল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু (আরসিবি)।

বিশ্বের সবচেয়ে জাঁকজমকপূর্ণ ফ্রাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪তম আসরে শুক্রবার রাতে উদ্বোধনী ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন আরসিবি’র বিরাট। 

শুক্রবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান জড়ো করে মুম্বাই। রোহিত শর্মার দলের হয়ে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান আসে ক্রিস লিনের ব্যাট থেকে। ৩৫ বলে ৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় লিন করেন ৪৯ রান। এছাড়া সূর্যকুমার যাদব ২৩ বলে ৩১, ঈশান কিষাণ ১৯ বলে ২৮ আর অধিনায়ক রোহিত শর্মার ব্যাট থেকে আসে ১৫ বলে ১৯ রান।

ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে একাই মুম্বাইয়ের ব্যাটিং স্তম্ভ ধসিয়ে দিয়েছেন হার্শাল প্যাটেল। শেষ ওভারেই তুলে নেন তিনটি উইকেট, ওই ওভারে চার উইকেট হারিয়ে মাত্র ১ রান তুলতে পারে মুম্বাই।

মাত্র ১৬০ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ব্যাঙ্গালুরুর উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৩৬ রানে। অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে ছিলেন ওয়াশিংটন সুন্দর। অধিনায়ক কোহলি বেশ দেখেশুনেই শুরু করেছিলেন এদিন। তবে হাঁকাতে পারেননি বড় ইনিংস। ২৯ বলে মাত্র ৩৩ রান করেই ফিরতে হয়ে তাকে। এরপর বড় ইনিংসের ইঙ্গিত দিয়েও ২৮ বলে ৩৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

ম্যাক্সওয়েল আউট হওয়ার পরেই দ্রুত আরো দুটি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ব্যাঙ্গালুরু। সেখান থেকে ২৭ বলে ঝড়ো ৪৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংসে ব্যাঙ্গালুরুকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন এবিডি ভিলিয়ার্স। তবে দল জয়ের বন্দরে নোঙর করার আগে মাত্র দুই রান বাকি থাকতেই শেষ ওভারে ভিলিয়ার্সকে আউট করে রোমাঞ্চ জমিয়ে তোলে মুম্বাই। আউট হওয়ার আগে নামের ভিলিয়ার্স ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ইনিংস সাজিয়েছিলেন।

এরপর শেষ বলে ১ রানের দরকার হলে হার্শালের ব্যাট থেকে আসে ওই একটি রান। আর তাতেই ২ উইকেটের রোমাঞ্চকর জয় নিয়ে এবারের আইপিএল যাত্রা শুরু করে বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: ১৫৯/৯ (২০ ওভার); (লিন ৪৯, সূর্যকুমার ৩১); (হার্শাল ২৭/৫, সুন্দর ৭/১)।

রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। ১৬০/৮ (২০ ওভার); (ডি ভিলিয়ার্স ৪৮, ম্যাক্সওয়েল ৩৯, কোহলি ৩৩); (বুমরাহ ২৬/২, জানসেন ২৮/২)।

ফলাফল: রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ২ উইকেটে জয়ী।