আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখে এসে যা বললেন কাদের মির্জা

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখে এসে যা বললেন কাদের মির্জা

বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তাকে দেখতে বুধবার সকাল ১০টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে আসেন ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

এদিকে সকালে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে যান কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতি বঙ্গবীর আবদুল কাদের সিদ্দিকী। তবে দর্শনার্থীদের প্রবেশে বিধিনিষেধ থাকায় তিনি ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে পারেননি।

এর আগে মঙ্গলবার বিকালে ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে আসেন আরেক ছোট ভাই শাহাদাত হোসেন। বেরিয়ে এসে তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের ভালো আছেন। তার পায়ে পানি নেমেছে।  তার অ্যাজমার সমস্যা রয়েছে।  তার জন্য সবাই দোয়া করবেন।     অসুস্থবোধ করায় মঙ্গলবার সকাল ১০টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তি হন ওবায়দুল কাদের। তাকে কেবিন ব্লকে রাখা হয়েছে। মন্ত্রীর চিকিৎসায় গতকালই ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।  ওবায়দুল কাদেরের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায়, তিনি কয়েক দিন ধরে কিছুটা শ্বাসকষ্টের সঙ্গে বুকে ব্যথাও অনুভব করছিলেন। বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী জানার পর সকালে ওনাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন। এর পর বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ওবায়দুল কাদের। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে ৩১২ নম্বর কেবিনে ভর্তি করা হয়েছে।

৬৯ বছর বয়সি ওবায়দুল কাদের দীর্ঘদিন ধরে হৃদরোগ ও ফুসফুসের ক্রনিক সমস্যায় ভুগছেন। ২০১৯ সালে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তার হৃৎপিণ্ডের রক্তনালিতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। পরে তাকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ড এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়া হয়।  সেখানে তার বাইপাস সার্জারি করা হয়।