আমাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র চলছে : ইমরান খান

আমাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্র চলছে : ইমরান খান

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই-ইনসাফ নেতা ইমরান খান আবারও জানিয়েছেন তার জীবন ঝুঁকিতে আছে। গতকাল শনিবার পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশের শিয়ালকোট শহরে তেহরিকে ইনসাফ পার্টি আয়োজিত এক বিশাল জনসমাবেশে ভাষণ দেওয়াকালে তিনি এ কথা বলেন।

ইমরান খান বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা এখনও তাকে হত্যা করার পরিকল্পনা করে যাচ্ছে এবং এ পরিকল্পনা দেশের ভেতরে ও বাইরে বসে করা হচ্ছে।

ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আরও বলেন, দেশের ভেতরে ও বাইরের একাধিক শক্তিশালী অবস্থান থেকে তাকে হত্যা করার হুমকি দেয়া হয়েছে।

তিনি এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও রেকর্ড করার খবর দিয়েছেন যেখানে তিনি সকল হুমকিদাতা ও ষড়যন্ত্রকারীর নাম ও প্রমাণ তুলে ধরেছেন।

সাবেক পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি একটি ভিডিও রেকর্ড করে নিরাপদ স্থানে রেখে দিয়েছেন। যদি কখনও তার জীবনের জন্য হুমকি সৃষ্টি হয় কিংবা তিনি নিহত হন তখন এ ভিডিও প্রকাশ করা হবে। ওই ভিডিওতে তিনি তার সরকার উৎখাত ও তাকে হত্যা করার ষড়যন্ত্রে জড়িত ব্যক্তিদের নাম প্রমাণসহ তুলে ধরেছেন।

পাকিস্তানের বিচারের বিভাগের কড়া সমালোচনা করে ইমরান খান বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এবং তার ছেলে ও পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীসহ এই সরকারের সব মন্ত্রী দুর্নীতিতে জড়িত। তিনি নিজের বিগত সরকারকে দুর্নীতিমুক্ত হিসেবে দাবি করে বলেন, তিনি দেশকে চুরি ও লুটপাটমুক্ত করতে চেয়েছিলেন কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীরা তা সহ্য করেনি।

উল্লেখ্য, গতমাসে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে এক অনাস্থাভোটে হেরে গিয়ে ক্ষমতাচ্যুত হন ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিতে প্রবেশকারী ইমরান খান। তার চীন ও রাশিয়া-ঘেঁষা নীতিতে নাখোশ হয়ে আমেরিকাই নেপথ্যে থেকে এই সরকার পরিবর্তন প্রক্রিয়া ঘটিয়েছে বলে এর আগে অভিযোগ করেছেন ইমরান খান। তার ক্ষমতাচ্যুতির পর পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নাওয়াজ) শাখার নেতা শাহবাজ শরিফ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। শিয়ালকোটের সমাবেশে পাকিস্তানে অনতিবিলম্বে মধ্যবর্তী নির্বাচন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন ইমরান খান।