আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম-দুর্নীতি, দুই সাবেক ডেপুটি গভর্নরের সাক্ষাৎকার নিচ্ছে তদন্ত কমিটি

সংগ্রহীত

আদালতের পর্যবেক্ষণের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ডেপুটি গভর্নর এ কে এম সাজেদুর রহমান খানকে প্রধান করে কমিটি গঠন করে বাংলাদেশ ব্যাংক। এই কমিটিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তা ছাড়াও সাবেক বিচারক ও আমলারাও রয়েছেন। আগামী মাসেই এই কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করে গভর্নরের কাছে জমা দেবে।

মূলত বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেডের (বিআইএফসি) আর্থিক অনিয়মের ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের দায়দায়িত্ব নির্ধারণে তদন্ত কমিটি গঠন করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এই কমিটি বিআইএফসির পাশাপাশি অন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনিয়মের ঘটনাও খতিয়ে দেখছে। এসব ঘটনায় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকের যাঁরা দায়িত্বে ছিলেন, তাঁদের ভূমিকাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ জন্য তদন্ত কমিটি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তার পাশাপাশি বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিচালক ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলছে।

জানা গেছে, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিআইএফসির পরিচালনা পর্ষদ অপসারণের নির্দেশনা চেয়ে একটি বিদেশি অংশীদারি প্রতিষ্ঠানের করা আবেদনে বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশিদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর আদেশ দেন। আদালতের পর্যবেক্ষণে আসে, ২০০২ সাল থেকে এখন পর্যন্ত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম দেখভালের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের সবাইকে জবাবদিহির আওতায় আনতে হবে।