উত্তাল সুদানে বৈঠকের ডাক জাতিসংঘের

উত্তাল সুদানে বৈঠকের ডাক জাতিসংঘের
শনিবার সুদানজুড়ে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভকারীদের দমনে গুলি চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। এতে তিনজন নিহত ও বহু মানুষ আহত হন। বেসামরিক নাগরকিদের হতাহতের জেরে জাতিসংঘের এ বৈঠকের ডাক দেয়া হলো।

সুদানের সংঘাত-সহিংসতার জেড়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কাউন্সিলের বিশেষ বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছেন বেশ কয়েকটি দেশ। ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র, নরওয়েসহ ৪৮টি দেশ এ বৈঠকের আবেদন জানিয়েছে।

গেল সপ্তাহে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই বিক্ষোভে উত্তাল সুদান। সবশেষ শনিবার রাজধানী খার্তুমসহ দেশটির বিভিন্ন শহরের রাজপথে নামেন হাজার হাজার মানুষ। সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে চলে স্লোগান। জাতীয় পাতাকা হাতে বিক্ষোভে ভেটে পড়েন সাধারণ মানুষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নির্বিচারে গুলি চালায় নিরাপত্তা বাহিনী।

এসময় বিক্ষোভকারীরাও পাল্টা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করলে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় পুরো এলাকা। চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। এক পর্যায়ে রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে রাখেন আন্দোলনকারীরা। দুপক্ষের সংঘর্ষে হতহাত হন অনেকে।

দেশটির সাম্প্রতিক সংঘাত সহিসংতার ঘটনায় অবশেষে নড়েচরে বসেছে বিশ্ব সম্প্রদায়। সুদানের বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষায় জাতিসংঘের মানবাধিকা কাউন্সিলের জরুরি বৈঠক আয়োজনের আবেদন জানিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র ও নরওয়েসহ ৪৮টি দেশ এবং বেশ কয়েকটি সংস্থা জরুরি ভিত্তিতে সুদানের সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে।


বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষার পাশাপাশি আটক ব্যক্তিদের অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানানো হয়েছে। এছাড়া, গণতান্ত্রিক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর ও মানবাধিকার নিশ্চিতের পাশাপাশি সংঘাত বন্ধে সুদানের সেনাবাহিনীকে দায়িত্বশীল হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যদিও সাধারণ মানুষকে গ্রেফতাও নির্যাতেনর অভিযোগ অস্বীকার করেছে সুদানের সামরিক সরকার।