এই মুহূর্তে বিএনপির দাবি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সরকারের পদত্যাগ : মির্জা ফখরুল

এই মুহূর্তে বিএনপির দাবি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সরকারের পদত্যাগ : মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে তাদের দুটি দাবি; একটি হলো দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, আরেকটি সরকারের পদত্যাগের মাধ্যমে নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর।

তিনি বলেন, ‘খুব পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই, আমাদের দাবি খুব পরিষ্কার। প্রথম দাবি হচ্ছে- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে; দ্বিতীয় দাবি হচ্ছে, সরকারকে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা দিতে হবে। সেই নিরপেক্ষ সরকার একটা নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের মধ্যে দিয়ে যে নির্বাচন পরিচালনা করবেন। সেই নির্বাচনের মধ্যে দিয়ে জনগণের একটি সংসদ ও সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে।’

আজ সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরাম এবং বাংলাদেশ ছাত্র ফোরামের যৌথ উদ্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১৬তম কারাবন্দি দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব দাবির কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা আস্থার সঙ্গে বলতে চাই, অতি অল্প সময়ের মধ্যে তারেক রহমানের নেতৃত্বে ও খালেদা জিয়ার প্রত্যক্ষ সক্রিয় অংশগ্রহণের মধ্যে দিয়ে ইনশাআল্লাহ দেশ ও দেশের মানুষকে মুক্ত করতে সক্ষম হব।’

উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরামের অন্যতম উপদেষ্টা ও বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিমের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী, বিএনপি নেতা শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, জহির উদ্দিন স্বপন, শামা ওবায়েদ, সেলিমুজ্জামান সেলিম, তাইফুল ইসলাম টিপু, ওবায়দুর রহমান চন্দন, যুবদলের এস এম জাহাঙ্গীর, ছাত্রদলের ফজলুর রহমান খোকন প্রমুখ।

সিইসির প্রতি প্রশ্ন রেখে রিজভী বলেন, বিরোধী দল মাঠ ধরে রাখার কে। মাঠ তো সমান থাকবে, স্বচ্ছ থাকবে; সেটা নিশ্চিত করার দায়িত্ব সরকার এবং তার নির্বাচন কমিশনের। কিন্তু এই লুটেরা, ডাকাত সরকারের আমলে কি মাঠ সমান থাকবে। সেটা কি আপনি জানেন না?