এবার উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের

এবার উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের

এবার সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবি তুলেছেন বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা।

রোববার বিকেল ও সন্ধ্যায় পুলিশি হামলা ও ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণার পর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) সকালে কিছু শিক্ষার্থীদের হল ছাড়তে দেখা গেলেও, ৯টার দিকে বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলসহ অন্যান্য হলের সামনে হল ছাড়তে অস্বীকৃতি জানিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা।

এরপর হল ছেড়ে মিছিল সহযোগে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করতে থাকেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানিয়েছে, অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। দুপুর ১২টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের তিন ছাত্রহল ও দুই ছাত্রীহল ত্যাগের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

জরুরি সিন্ডিকেট সভা শেষে রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের এ ঘোষণা দেন বলেও জানানো হয়।

উল্লেখ্য, প্রাধ্যক্ষ জাফরিনের পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা হলের ছাত্রীরা বৃহস্পতিবার রাত থেকে বিক্ষোভ শুরু করেন।

শুক্রবার আইসিটি ভবনে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। উপাচার্যকে মুক্ত করতে পুলিশ শিক্ষার্থীদের সাথে সংঘর্ষে জড়ায়।

পুলিশের লাঠিচার্জ, শটগানের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেডে অন্তত ৫০ শিক্ষার্থী, কয়েকজন শিক্ষক ও গণমাধ্যমকর্মী আহত হন। এসময় ১০ পুলিশ সদস্যও আহত হন বলে জানা যায়।

এদিকে, সিরাজুন্নেসা হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদ ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করায় অধ্যাপক নাজিয়া চৌধুরীকে নতুন প্রাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।