কনক সারোয়ারের বোন রাকার বিরুদ্ধে মাদকসহ দুটি মামলা

কনক সারোয়ারের বোন রাকার বিরুদ্ধে মাদকসহ দুটি মামলা

রাষ্ট্রবিরোধী অপতৎপরতা ও অপপ্রচারের দায়ে অভিযুক্ত সমালোচিত সাংবাদিক ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ড. কনক সারোয়ারের বোন নুসরাত শাহরিন রাকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা এবং মাদক আইনে দু’টি মামলা দিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় এই মামলা দুটি দায়ের করা হয়।

আজ বুধবার সকালে র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আ ন ম ইমরান খান বলেন, উত্তরা পশ্চিম থানায় রাকার বিরুদ্ধে দু’টি মামলা দায়ের করেছে র‍্যাব। মাদক নিয়ন্ত্রণ ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দুটি করা হয়েছে। রাকাকে ওই থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার ভোরে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। অভিযানে তার হেফাজত থেকে রাষ্ট্রবিরোধী কন্টেন্টসহ একটি মোবাইল ফোন, পাসপোর্ট ও আইস (ক্রিস্টাল মেথ) উদ্ধার করে র‍্যাব।

গ্রেপ্তার রাকার ব্যাপারে র‌্যাব জানায়, তিনি (নুসরাত শাহরিন রাকা) রাষ্ট্রবিরোধী অপপ্রচারকারী ও ষড়যন্ত্রকারী চক্রের একজন সক্রিয় সদস্য। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রাষ্ট্র ও রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিয়ে মিথ্যাচার, বিভ্রান্তিকর, মানহানিকর তথ্য ছাড়াও বিভিন্ন উসকানিমূলক তথ্য প্রচার করছিলেন। এতে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্টের অপচেষ্টা ছিল।

 

র‌্যাব সূত্রে আরো জানা গেছে, ‘বিদেশে পলাতক’ অবস্থায় সাংবাদিক এবং টিভি উপস্থাপক কনক সারোয়ার দীর্ঘদিন ধরে সরকারবিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত। তার বিরুদ্ধে ঢাকায় একাধিক মামলা রয়েছে। দেশে বেশকিছু দিন কারাবন্দি ছিলেন তিনি। জামিনে জেল থেকে বেরিয়ে তিনি বিদেশে পালিয়ে যান। তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন।