করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট রোধে বেনাপোলে অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন

সংগ্রহীত

করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট রোধে বেনাপোলে অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে খুলনার শার্শা উপজেলায় ১০১ কিলোমিটার সীমান্ত জুড়ে কঠোর নজরদারি শুরু করেছে ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়ন ও ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়ন। বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সকাল থেকে বিজিবির সদস্যদের টহল দিতে দেখা যায়।

ভারতীয় ট্রাক চালকেরা যেন বন্দরের বাইরে বের হতে না পারে সেজন্য বন্দর এলাকায় অতিরিক্ত বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল সেলিম রেজা বলেন, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে। এ কারণে শার্শা উপজেলার সব সীমান্তবর্তী এলাকায় বিজিবি নজরদারি জোরদার করা হয়েছে। বড়আচড়া, সাদিপুর, গাতিপাড়া, দৌলতপুর, রঘুনাথপুর, ঘিবা ও শিকারপুর কাশিপুর ও বেনাপোল স্থলবন্দর এলাকাকে স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব এলাকায় অবৈধ যাতায়াত প্রতিরোধে বিজিবি সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

এ বিষয়ে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব বলেন, বুধবার (২ জুন) পর্যন্ত ভারত থেকে ৭০ জন বাংলাদেশি দেশে এসেছেন।

১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনের জন্য তাদের পুলিশের সহযোগিতায় বেনাপোল ও যশোরের বিভিন্ন হোটেল ও গেস্ট হাউসে রাখা হয়েছে।