করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৮ জন

করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৮ জন
দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ১০৮ জনের। একই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১৯৮ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৪৯ হাজার ২৫৩ জনে।
শনিবার (১২ মার্চ) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতাল ও বাড়িতে উপসর্গবিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৮২১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৫৯ হাজার ৪৬৯ জন। সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৭৮টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১১ হাজার ৮৪টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ হাজার ১৮৩টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে এক কোটি ৩৬ লাখ ২৫ হাজার ৩৭১টি।
এতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার এক দশমিক ৭৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৫ দশমিক ৩৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৯ শতাংশ।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত তিনজনই পুরুষ। মৃত তিনজনের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে একজন ও ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।
মৃত তিনজনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের একজন, রাজশাহী বিভাগের একজন ও বরিশাল বিভাগের একজন রয়েছেন। মৃত তিনজনই সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।
এতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৩৪ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ২৮১ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন চার লাখ ৪২ হাজার ৭৯১ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন চার লাখ পাঁচ হাজার ৬৫৬ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৭ হাজার ১৩৫ জন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।