করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে দিয়ে ভয় দেখিয়ে পাওনা টাকা আদায়

সংগ্রহীত

করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে দিয়ে ভয় দেখিয়ে পাওনা টাকা আদায়

পাওনা টাকা আদায় করতে পারছেন না কোনভাবেই। তাই টাকা আদায়ে নিজের করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে নিয়ে হাজির পাওনাদার। স্ত্রীকে দিয়ে সংক্রমণের ভয় দেখিয়ে শেষ পর্যন্ত আদায় করেন পাওনা টাকা।

এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার বৈদ্যবাটিতে।

দীর্ঘদিন ধরে ইটের ব্যবসা করেন বৈদ্যবাটির মাটিপাড়ার বাসিন্দা গঙ্গারাম সরকার। তার দাবি, কয়েক মাস আগে বৈদ্যবাটিরই নিমাইতীর্থ ঘাট এলাকার ইটভাটা মালিক শেষনাথ সিংহকে ৫ লাখ রুপি ধার দেন তিনি। কিন্ত সেই টাকা বা তার বদলে ইট কোনোটাই পাননি বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এমনকি শেষনাথের দেয়া চেকও বাউন্স হয় বলে অভিযোগ করেন গঙ্গারাম। পরে শেষনাথকে হোয়াটসঅ্যাপে স্ত্রীর করোনা রিপোর্ট পাঠিয়ে টাকা চান তিনি। কিন্তু তাতেও টাকা না পাওয়ায় স্ত্রীকে অটোতে চড়িয়ে হাজির হন শেষনাথের বাড়ি। দেড় ঘণ্টার মতো অপেক্ষা করে ১০ হাজার রুপি আদায় করেন গঙ্গারাম।

এদিকে, শেষনাথের দাবি ইটভাটা বন্ধ থাকায় তিনি ঋণের টাকা শোধ দিতে পারেননি। তবে গঙ্গারামের এমন কাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। এ ঘটনায় আতঙ্কও ছড়িয়েছে বৈদ্যবাটির ওই এলাকায়।