করোনা স্বাস্থ্যবিধির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল জার্মানি

করোনা স্বাস্থ্যবিধির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উত্তাল জার্মানি
জার্মান সরকারের আরোপ করা বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে স্থানীয় সময় সোমবার রাতে দেশটিতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করে সাধারণ মানুষ। তীব্র শীত উপেক্ষা করে দেশটিতে প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো অঙ্গরাজ্যের রাস্তায় বিক্ষোভে অংশ নিচ্ছেন হাজারো মানুষ।

জার্মানিতে করোনা যেমন কেড়ে নিচ্ছে শত শত মানুষের প্রাণ ঠিক তেমনি করোনাকে রুখতে দেশটির সরকারের দেয়া নানা বিধিমালাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাড়ছে বিরোধীদের সংখ্যাও।

বড়দিনের মাসেও সন্ধ্যা নামতেই প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে কখনো ডুইসেলডরফে, কখনো কার্লসরুহে, কখনোবা স্টুর্টগার্ট, হামবুর্গে আবার কখনো ড্রেসডেনে অঙ্গরাজ্যের স্বাস্থ্য মন্ত্রীর বাসভবনের সামনে করোনার নিয়ম নীতি বিরোধী সমাবেশে অংশ নিচ্ছে হাজারো মানুষ।
এমনকি বাদ যায়নি রোস্টকও। সোমবার সেখানের করোনা বিরোধী বিক্ষোভে যোগ দেয় কমপক্ষে ১০ হাজার মানুষ। বিক্ষোভকারীরা অনতিবিলম্বে করোনার নামে জার্মানির সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে ফায়দা লোটার মাধ্যমে শলজ সরকারের ষড়যন্ত্রকে নস্যাৎ করার জন্য সবাইকে এক হওয়ার আহবান জানান।
কারণ আমরা সবাই এক। করোনার ভ্যাকসিন নেয়া না নেয়া একান্তই সাধারণ নাগরিকদের গণতান্ত্রিক ও সামাজিক অধিকার। দেশটির অন্যান্য অঞ্চলের মত রোস্টকের করোনা বিরোধী বিক্ষোভেও মানা হয়নি শারিরীক দূরত্ব। ছিলনা মাস্কের কোন বালাই। সমাবেশকারীদের ঠেকাতে হিমশিম খেতে হয় কয়েকশো আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যকে।
একই করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পক্ষেও সমাবেশ করেন কয়েকশো মানুষ। সামনের দিনগুলোতে করোনার পঞ্চম ঢেউ অর্থ্যাৎ ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টকে রুখতে চলমান বিধিনিষেধে আরো কড়াকড়ির ঘোষণা দিয়েছে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলজ।