কানাডার ক্যালগেরির এবিএম কলেজের বৃত্তি ঘোষণা

কানাডার ক্যালগেরির এবিএম কলেজের বৃত্তি ঘোষণা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সামনে রেখে বাংলাদেশ থেকে পড়তে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য কানাডার ক্যালগেরির এবিএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ড. বাতেন বৃত্তি ঘোষণা করেছেন। বৃত্তির পরিমাণ এক লাখ কানাডিয়ান ডলার। বাংলাদেশ থেকে যে সকল শিক্ষার্থী কানাডায় এসে এ বিএম কলেজে পড়াশোনা করবে তাদের মধ্যে প্রথম ১০০ জনকে এই বৃত্তি প্রদান করা হবে।

উল্লেখ্য, ক্যালগেরির এবিএম কলেজ ইতিমধ্যেই ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

এ পর্যন্ত দশ সহস্রাধিক ছাত্র-ছাত্রী এখান থেকে কোর্স সম্পন্ন করে কানাডার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সুনামের সাথে চাকরি করছে। কলেজেটি হেলথ, বিজনেস এবং ইনফরমেশন টেকনোলজির বিভিন্ন শাখায় ডিপ্লোমা প্রদান করে। বিস্তারিত তথ্য,

এবিএম কলেজের প্রেসিডেন্ট ড. বাতেন নিউজ টোয়েন্টিফোরকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে বলেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সামনে রেখে ভাষার মর্যাদা রক্ষার্থে ২০২২ সালে বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীদের এবিএম কলেজ এক লাখ কানাডিয়ান ডলার বৃত্তি প্রদান করবে। বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রী যারা নতুন কানাডায় এসে এ বি এম কলেজে পড়াশোনা করবে তারা এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে বাস্তবে রূপ দিতে আমাদের প্রবাসীদের এগিয়ে আসতে হবে। তা না হলে স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে। আমরা চাই প্রচুরসংখ্যক বাংলাদেশি ছাত্র ছাত্রীরা এদেশে এসে উন্নত শিক্ষা গ্রহণ করে দেশের ভাবমূর্তিকে উজ্জ্বল ও সেইসাথে দেশের অর্থনীতিকে আরো সমৃদ্ধিশালী করে তুলুক।

ড. বাতেন বলেন, ৫২ এর ভাষা আন্দোলন, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও পরবর্তীতে দেশের জন্য যারা জীবন দিয়েছেন তাদের কর্ম ও আত্মত্যাগ বিশ্বের দরবারে তুলে ধরতে এবং লাল সবুজের পতাকার মান সমন্বিত রাখতে জাতি-ধর্ম-বর্ণনির্বিশেষে আমাদের প্রবাসীদের এগিয়ে এসে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করতে হবে। আর সেই লক্ষ্যে উচ্চ শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

উল্লেখ্য, ড. বাতেন বাংলাদেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিষয়কসহ বিভিন্ন সমাজসেবা ও জনকল্যাাণ মূলক কাজে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত।