কানাডায় মুসলিম যুবকের দাড়ি ধরে টানাটানি, ছুরিকাঘাত

সংগ্রহীত

কানাডায় মুসলিম যুবকের দাড়ি ধরে টানাটানি, ছুরিকাঘাত

কানাডার ওন্টারিওতে ইসলামবিদ্বেষী এক শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী গাড়ি চাপা দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের ৪ সদস্যকে হত্যার কয়েক সপ্তাহ পর এবার সাসক্যাচুয়ানে এক মুসলিম যুবকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

দাড়ি রাখায় এবং ইসলামি পোশাক পড়ায় সাসক্যাচুয়ান প্রদেশের সাসকাতুন শহরে দুই অজ্ঞাত বর্ণবাদী সন্ত্রাসী পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত মোহাম্মদ কাশিফ (৩২) নামে এক মুসলিম অভিবাসীকে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ ও ছুরিকাঘাত করেছে। খবর দ্যা ডনের।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়িতে ফিরার সময় হামলাকারীরা তাকে ছুরিকাঘাত করার সময় চিৎকার করে বলেন, আপনি কেন এই পোশাক পরেছেন? আপনি এখানে কেন? আপনার দেশে ফিরে যান। আমরা মুসলমানদের ঘৃণা করি।

তারা ওই মুসলিম যুবককে- আপনি দাড়ি রেখেছেন কেন? এ কথা বলে তার দাড়ির একটি অংশ কেটে দিয়েছে। পরে তার বাহুতে ছুরিকাঘাত করে। এতে তার ক্ষত স্থানে ১৪টি সেলাই লেগেছে।

এ সময় পাশেই আরেকজন হামলাকারীদের নিয়ে পালিয়ে যেতে গাড়ি নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন বলে পুলিশকে জানান কাশিফ।

সাসকাতুন শহরের মেয়র সার্লি ক্লার্ক এক বিবৃতিতে এ ঘটনাকে ভয়ানক ও মর্মান্তিক বলে উল্লেখ করেছেন।

এতে তিনি আরও বলেন, যে বর্ণবাদীরা সমাজে ইসলামভীতি, ঘৃণা ও বর্ণবিদ্বেষ ছড়াচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

২০ বছর আগে কাশিফ কানাডায় আসেন। ৩-৮ বছর বয়সি তিন সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে এখন তিনি বেশ আতঙ্কে আছেন।

জুনের ৬ তারিখে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত আরেকটি পরিবারকে ইচ্ছে করে গাড়ি চাপা দেয় এক শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী চালক।পুলিশের কাছে তিনি এক কথা অকপটে স্বীকারও করেন।