খুলনায় বিএনপির সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ আহত ২৫

খুলনায় বিএনপির সমাবেশে পুলিশের লাঠিচার্জ আহত ২৫

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবিতে খুলনায় বিএনপির সমাবেশ কর্মসূচিতে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। এতে মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খানসহ কমপক্ষে ২৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

পরে বিক্ষুদ্ধ বিএনপির নেতাকর্মী পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে সমাবেশস্থলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে।

সোমবার বেলা পৌনে ১২ টার দিকে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ চলাকালে এসব ঘটনা ঘটে।

মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ চলছিল। পুলিশ সকাল থেকেই দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। সমাবেশ চলাকালে তারা নেতার্মীদের ওপর পুলিশ চড়াও হয় এবং লাঠিচার্জ করে তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে কমপক্ষে অর্ধশত নেতাকর্মী আহত হয়েছে। পুলিশ কয়েকজনকে মারধর করে থানায় নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, হামলা-মামলা করে পুলিশ বিএনপির কর্মসূচি বন্ধ করতে পারবে না। বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সু-চিকিৎসার দাবি না মানা পর্যন্ত এ কর্মসূচি চলবে।বিএনপির কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, নগর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনি, মহানগর বিএনপি যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তরিকুল ইসলাম, বিএনপি নেতা আমির এজাজ খান, মীর কায়সেদ আলী, মোশাররফ হোসেন, সেকেন্দার জাফর উল্লাহ খান সাচ্চু, এসআর ফারুক, আবু হোসেন বাবু, আসাদুজ্জামান মুরাদ, মনিরুজ্জামান মন্টু, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, শেখ আব্দুর রশীদ প্রমুখ।