গবেষণার ফলাফল যেন মানুষের কল্যাণে আসে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

গবেষণার ফলাফল যেন মানুষের কল্যাণে আসে : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আগে টিকা নিয়ে অনাগ্রহ থাকলেও এখন আগ্রহ নিয়ে টিকা নিচ্ছে মানুষ। দেশের সব মানুষকেই টিকা নিতে হবে। চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের কথা মাথায় রেখে গবেষণা কার্যক্রম এগিয়ে নেয়ার আহবান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, গবেষণার ফলাফল যেন মানুষের কল্যাণে আসে তা নিশ্চিত করতে হবে।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, বিজ্ঞানী, গবেষক এবং বিজ্ঞান শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনুদান প্রদান করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী পরিসংখ্যান দিতে গিয়ে বলেন, আমরা দেশ-বিদেশে বিজ্ঞান-প্রযুক্তির ক্ষেত্রে এমএস, এমফিল, পিএইচডি, ও পিএইচডি-উত্তর প্রোগ্রামের জন্য বঙ্গবন্ধু ফেলোশিপ দিচ্ছি। ২০১০-১১ অর্থবছর থেকে বর্তমান পর্যন্ত ৫৯৬ জনকে ২২৫ কোটি ৮২ লাখ টাকা দিয়েছি। এ ছাড়াও এমফিল, পিএইচডি ও পিএইচডি-উত্তর পর্যায়ে ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে বর্তমান পর্যন্ত ২২ হাজার ২২০ ছাত্র-ছাত্রী ও গবেষকদের মধ্যে ১৩৭ কোটি ৫৩ লাখ টাকা জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ দিয়েছি। পাশাপাশি ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে বর্তমান পর্যন্ত ৫ হাজার ২০টি প্রকল্পের অনুকূলে ১৭৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বিশেষ অনুদান দিয়েছি।

গণভবন থেকে এ আয়োজনে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, যারা ফেলোশিপ পেয়েছেন, তাদের সর্বোচ্চ শ্রম ও মেধা নিয়ে কাজ করতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, একশ বছরের যে উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে, তা বাস্তবায়ন করা গেলে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না।