গুরুতর অসুস্থ অভিনেত্রী আনোয়ারা, চোখে দেখছেন ঝাপসা

গুরুতর অসুস্থ অভিনেত্রী আনোয়ারা, চোখে দেখছেন ঝাপসা

কিংবদন্তি অভিনেত্রী আনোয়ারা গুরুতর অসুস্থ। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের পর চোখে ঝাপসা দেখছেন তিনি। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) সন্ধ্যায় আনোয়ারার মেয়ে অভিনয়শিল্পী রুমানা ইসলাম মুক্তি গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।

এই অভিনয়শিল্পী নিজের মেয়ে মুক্তিকেও চিনতে পারছিলেন না। কয়েক দিন পর মেয়েকে একটু একটু চিনতে পারলেও পরিবারের বাইরের কাউকে এখনো ঠিকমতো চিনতে পারছেন না চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনের জ্যেষ্ঠ অভিনয়শিল্পী আনোয়ারা বেগম। গত ১১ মার্চ রাতে হঠাৎ মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হলে ঢাকার রামপুরার বনশ্রীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় এই অভিনয়শিল্পীকে। টানা ১০ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর ২ দিন আগে তাকে বাসায় আনা হয়।

মেয়ে মুক্তি বলেন, ‘আম্মা এখন আমার বাসায় আছেন। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের কারণে চোখে ঝাপসা দেখছেন। প্রথমদিকে কিছুই দেখতে পাচ্ছিলেন না। তবে, আস্তে আস্তে দেখতে পাচ্ছেন। আশা করি খুব শিগগির এই সমস্যার সমাধান হবে।’

মুক্তি বলেন, ‘কয়েকদিন আগে আম্মার ব্রেন স্ট্রোক হয়। তখন থেকেই এ সমস্যা দেখা দেয়। আমাকেও চিনতে পারতেন না। তবে আল্লাহর রহমতে এখন একটু ভালো। এখন বাসায়ই চিকিৎসা চলছে। ডাক্তার বলেছেন, ধীরে ধীরে স্মৃতিশক্তি ও দৃষ্টিশক্তির সমস্যা ঠিক হয়ে যাবে।’

গত ১১ মার্চ রাতে হঠাৎ মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হলে ঢাকার রামপুরার বনশ্রীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় আনোয়ারাকে। ১০ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফেরেন তিনি।

এদিকে চলচ্চিত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আনোয়ারাকে আজীবন সম্মাননা দিচ্ছে রাষ্ট্র। আগামীকাল বুধবার (২৩ মার্চ) ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে হল অব ফেম মিলনায়তনে বসছে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০২০’–এর আসর। সেখান থেকে এই পুরস্কার নেওয়ার কথা ছিল তার। তবে শারীরিক অসুস্থতার কারণে সশরীরে পুরস্কারটি নিতে পারছেন না তিনি, জানান তার মেয়ে মুক্তি।