জটিল শর্তে মেসিকে দলে নিতে চায় ‘বাজে ক্লাব’

সংগ্রহীত

জটিল শর্তে মেসিকে দলে নিতে চায় ‘বাজে ক্লাব’
সর্বশেষ চুক্তি অনুযায়ী, ৩০ জুন পর্যন্ত বার্সেলোনার ফুটবলার ছিলেন লিওনেল মেসি। নতুন চুক্তি স্বাক্ষর না হওয়ায় ফ্রি এজেন্ট হিসেবে মেসি এখন যে কোনো ক্লাবের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পারবেন।
এরই মধ্যে ব্রাজিলের একটি ক্লাব থেকে প্রস্তাবও পেয়েছেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। তারকা ফুটবলারকে ১৫ বছরের চুক্তিতে নিতে চায় ইবিস স্পোর্ট ক্লাবটি। সেই সঙ্গে তারা দিয়েছে বেশকিছু অদ্ভুত শর্ত।
তাদের দেওয়া অদ্ভুত শর্তগুলো মেনে নিলেই মেসির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করবে ব্রাজিলের রেসিফে শহরে অবস্থিত ‘বাজে’ এই ক্লাব। টানা ৩ বছর ১১ মাস কোনো ম্যাচ না জেতা ব্রাজিলের ক্লাবটি অবশ্য ‘বিশ্বের সবচেয়ে বাজে ক্লাব’ হিসেবে নিজেরই দাবি করে। এ জন্য হারতে হারতে ‘বিশ্বের সবচেয়ে বাজে’ বনে যাওয়া ক্লাবটির নাম উঠেছে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসেও।
ইবিস স্পোর্ট ক্লাবটি ১৯৮০ থেকে ১৯৮৪ সালের মধ্যবর্তী সময়ে তারা টানা ৩ বছর ও ১১ মাস জয়শূন্য ছিল। তারা ১০ নম্বর জার্সি (বার্সা ও আর্জেন্টিনার হয়ে একই নম্বরের জার্সি মেসিও পরেন) ক্লাবের কিংবদন্তি মাউরো শাম্পুর (অবসরপ্রাপ্ত) সম্মানে তুলে রেখেছে। এই শাম্পু আবার ১০ বছর ক্লাবটির হয়ে খেলে মাত্র এক গোল করেছিলেন।
বার্সার সঙ্গে মেসির চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার খবরটি শোনার সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ইবিস স্পোর্ট ক্লাব আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলারের জন্য প্রস্তাব পেশ করে। ওই প্রস্তাবের কিছু শর্ত হলো-
১. চুক্তির মেয়াদ হবে ১৫ বছরের, শুরু হবে ১ জুলাই ২০২১ থেকে।
২. বেতন দেওয়া হবে পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে।
৩. বেশি গোল করা যাবে না।
৪. চ্যাম্পিয়ন হওয়া যাবে না।
৫. দশ নম্বর জার্সি পরা যাবে না (শাম্পুর সম্মানে তুলে রাখা হয়েছে)।
৬. তাকে অবশ্যই আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে ৩ বার বলতে হবে ‘ম্যারাডোনার চেয়ে পেলে সেরা’।
এসব শর্ত না মানলে ফুটবলের এই সুপারস্টারকে বহিষ্কার করা হবে বলেও সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়। ফুটবলের এই সুপারস্টার যে অদ্ভুত ওই ক্লাবের প্রস্তাবে রাজি হবেন না, তা তো জানারই কথা। তবে ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ীকে নিয়ে অনিশ্চয়তা এখনও কাটছে না।
বিশ্বের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া ফুটবলার এখন চাকরিহারা। ক্লাব বার্সেলোনা থেকে বেতন বাবদ বছরে ৭১ মিলিয়ন ইউরো বেতন পেতেন লিওনেল মেসি।
করোনার ছোবলে ক্ষতির মুখে লা লিগার ফিনান্সিয়্যাল ফেয়ার প্লের হিসেবে ফুটবলারদের পারিশ্রমিক ১৭২ মিলিয়ন পাউন্ড বা প্রায় ২০০ মিলিয়ন ইউরো কমিয়ে আনতে হবে বার্সাকে। সেক্ষেত্রে কমাতে হবে মেসির পারিশ্রমিকও। আগের মতো বেতন-ভাতা দিয়ে মেসির সঙ্গে নতুন চুক্তি করলে শাস্তির মুখে পড়তে পারে কাতালান ক্লাবটি।
কাতালুনিয়ায় তাকে নিয়ে আলোচনা চলছে তো চলছেই। সেসব নিয়ে কি ভাবছেন মেসি? আর্জেন্টিনার হয়ে কোপা আমেরিকা জয়ের মিশনে আছেন ব্রাজিলে। আসর শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত হয়তো আর কিছুই ভাবতে চান না।