জিম্বাবুয়ে সফর: টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে চান না মুশফিক

সংগ্রহীত

জিম্বাবুয়ে সফর: টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে চান না মুশফিক

চলতি মাসের শেষে জিম্বাবুয়ে সফরে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ওই সফরে তিন ফরম্যাটের সিরিজ খেলবে টাইগাররা।কিন্তু অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে চান না।

সোমবার ক্রিকবাজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।  

মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘মুশফিক আমাকে ফোন করে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে চায় না বলে জানিয়েছে। ’ 

প্রধান নির্বাচক আরও জানান, খেলোয়াড়দের জন্য জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকাটা কঠিন হয়ে যাচ্ছে। আর মুশফিক ওই সিরিজ থেকে সরে দাঁড়াতে চান মূলত অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য ভালোভাবে প্রস্তুত থাকতে।  

তবে মুশফিকের ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন নান্নু, ‘আমরা এই ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত নেইনি। কিন্তু এসব ক্ষেত্রে তাদের (ক্রিকেটারদের) সিদ্ধান্তের প্রতি আমাদের সম্মান দেখাতে হবে। ’

এর আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানিয়েছিল, আসন্ন জিম্বাবুয়ে সফরে টাইগাররা একটি টেস্ট কম খেলবে। তার বদলে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ বাড়ানো হবে। এর আগে সফরে ৩টি ওয়ানডে ও ২টি টি-টোয়েন্টির সঙ্গে ২টি টেস্ট খেলার কথা ছিল।  

আগামী ৭ জুলাই থেকে সিরিজ শুরু হবে। টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে ৩ ও ৪ জুলাই দুটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তবে সবকিছু নির্ভর করেছে জিম্বাবুয়েতে গিয়ে টাইগারদের কোয়ারেন্টিন পর্ব কতদিনের হবে তার ওপর। যদি ২৯ জুন জিম্বাবুয়েতে গিয়ে ৫ থেকে ৭ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়, তাহলে প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।  

কোয়ারেন্টিন পর্ব নিয়ে স্বাগতিক ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। ওয়ানডে সিরিজের দুই দিন আগে (১৪ জুলাই) বাংলাদেশ দলের একটি অনুশীলন ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে। এরপর ওয়ানডে ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে যথাক্রমে ১৬, ১৮ এবং ২০ জুলাই। সবগুলো ম্যাচ হবে হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে। এরপর ২৩, ২৫ এবং ২৭ জুলাই একই ভেন্যুতে হবে ৩ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।