ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে শেষ নেই ভোগান্তির

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট পেতে শেষ নেই ভোগান্তির
রেলওয়ের ঈদযাত্রার অগ্রিম টিকিট বিক্রিতে একের পর এক জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। একে তো অনলাইন সার্ভারে ঢোকা যায় না, ভাগ্যগুণে যে কজন ঢুকতে পারছেন, তারা হয়তো টিকিট বুকিং দেওয়ার আগেই টাইম আউট হয়ে বের হয়ে যেতে হচ্ছে। এমনকি টিকিট বুকিং হওয়ার পরও ডাউনলোড কিংবা প্রিন্ট নিতে না পারার অভিযোগও রয়েছে অসংখ্য। সেই সঙ্গে কাউন্টারে টিকিট বিক্রিতেও অনিয়মের অভিযোগ যাত্রীদের।

দুদিন ধরে ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেসের একটা টিকিটের জন্য হাজারবার অনলাইনে ঢোকার চেষ্টা করেছেন এই যাত্রী। কিন্তু সফল হতে পারেননি। অনলাইনে টিকিট কিনতে যাওয়া অধিকাংশ যাত্রীর একই অবস্থা।

রাকিবুল নামের এই যাত্রীর ভোগান্তি আরও বেশি। অসংখ্যবার চেষ্টা করে ২৮ তারিখ যাত্রার টিকিট নিশ্চিত করেছেন। কিন্তু একদিন পেরিয়ে গেলেও টিকিট ডাউনলোড কিংবা প্রিন্ট কিছুই করতে পারছেন না। এখন ২৯ তারিখ যাত্রার টিকিট পাবেন কি না, তা-ও জানেন না। টাকা ফেরত পাওয়ারও কোনো নিশ্চয়তা মিলছে না।

মধ্যরাত থেকে অপেক্ষার পরও কাউন্টারের সামনে পৌঁছে টিকিট পাচ্ছেন না যাত্রীরা। এ নিয়ে রেল কাউন্টারের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। তবে যাত্রীদের এসব অভিযোগ মানতে নারাজ চট্টগ্রাম রেল স্টেশন ম্যানেজার রতন কুমার চৌধুরী।

তবে সবাইকে খালি হাতে ফিরতে হয়নি, কেউ কেউ দীর্ঘ অপেক্ষার পর টিকিট পেয়েছেন।
১০টি আন্তঃনগর এবং ২টি বিশেষ ট্রেনের ২৯ এপ্রিল যাত্রার প্রায় ৫ হাজার টিকিট বিক্রি হয়েছে ৮টি কাউন্টার থেকে।