থানার ছাদে এসআইয়ের আত্মহত্যা

সংগ্রহীত

থানার ছাদে এসআইয়ের আত্মহত্যা

নিজেই নিজের মাথায় গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন পাবনার আতাইকুলা থানার সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) হাসান আলী (২৮)। থানা ভবনের ছাদ থেকে  হাসান আলীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, নিজের মাথায় নিজেই গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন হাসান আলী।

রোববার (২১ মার্চ) সকালে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, হাসান আলী রোববার সকালের যে কোন একসময়ে নিজেই নিজের মাথায় পিস্তল দিয়ে গুলি চালান। সকালে তার মৃতদেহ পাওয়া গেছে। হাসান আলী এক বছর আগে আতাইকুলা থানায় যোগ দেন।

আত্মহত্যার বিষয়ে তিনি  বলেন, থানার ছাদের উপরে ঘটনাস্থলে তার ব্যবহৃত মোবাইলের সিমটি ভাঙা অবস্থায় পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কোনো বিষয়ে অভিমানের বশে তিনি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন। হাসান আলী অবিবাহিত ছিলো।

আতাইকুলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, হাসান ৮ ফেব্রুয়ারি আতাইকুলা থানায় যোগদান করেন। তিনি দরিদ্র ঘরের সন্তান ছিলেন। আর্থিক অনটনের মধ্যে ছিলেন তিনি। এসব হতাশা থেকে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে পুলিশের ধারণা।

বর্তমানে মরদেহ ক্রাইম সিনে ঘিরে রাখা হয়েছে। সিআইডির তদন্ত দলের আলামত গ্রহণ শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হবে।

হাসান আলী যশোরের কেশবপুর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের জব্বার আলীর ছেলে। তিনি বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে এক বছরের প্রশিক্ষণ শেষে ২০২০ সালে ৬ ফেব্রুয়ারি পাবনা জেলা পুলিশে যোগ দিয়ে এক বছর প্রবেশন সমাপ্ত করেন।