দক্ষিণ কোরিয়ো রাষ্ট্রদূতের আইইউবি’র ক্যাম্পাস পরিদর্শন

সংগ্রহীত

দক্ষিণ কোরিয়ো রাষ্ট্রদূতের আইইউবি’র ক্যাম্পাস পরিদর্শন

বাংলাদেশে নিযুক্ত দক্ষিণ দক্ষিণ কোরিয়ো রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং-কেন ১৭ জুন বৃহস্পতিবার রাজধানীর বসুন্ধরায় ইনডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ (আইইউবি) পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি আইইউবি’র উপাচার্য তানভীর হাসান, পিএইচডি এর সাথে বৈঠক করেন। দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বজায় রেখে আগামী দিনগুলোতে বিভিন্ন ইস্যুতে আইইউবি’র সাথে যৌথভাবে কাজ করতে রাষ্ট্রদূত লি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি একাডেমিক এবং সাংস্কৃতিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে আইইউবিতে কোরিয়ান ভাষা শিক্ষা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করতে কোরিয়া শিক্ষক পাঠানো সহ কোরিয়ো সেন্টার স্থাপন করার বিষয়ে আলোচনা করেন। এ সময় উপাচার্য তানভীর হাসান আইইউবি’র লক্ষ্য ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কোরিয়ো সংস্কৃতি বিষয়ক বিশেষজ্ঞ, বিশিষ্ট নির্মাতা, চলচ্চিত্র গবেষক ও আইইউবির মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের অধ্যাপক জাকির হোসেন রাজু সহ আইইউবি’র উপ -উপাচার্য অধ্যাপক নিয়াজ আহমেদ খান, ট্রেজারার খন্দকার ইফতেখার হায়দার, রেজিস্ট্রার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) আনোয়ারুল ইসলাম প্রমুখ।

এরপর তিনি মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের ‘ব্রডকাস্ট জার্নালিজম (টিভি) ল্যাব’ এবং ‘অডিও ভিজ্যুয়াল পোস্ট প্রোডাকশন ল্যাব’ পরিদর্শন করেন।

আইইউবি’র লেকচার থিয়েটারে আইইউবি কোরিয়ান ক্লাব (কে-ক্লাব) -এর উদ্যোগে একটি আলোচনা ও কালচারাল অনুষ্ঠানে অংশ নেন। আলোচনায় ফুটে উঠে ২০১৬ সাল থেকে অধ্যাপক রাজু তাঁর শিক্ষার্থীদের ‘কোরিয়ান সিনেমা অ্যাান্ড সোসাইটি’ বিষয়ে পড়ান।

সারা পৃথিবীতে অল্পকিছু নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোরিয়ো সংস্কৃতি নিয়ে পাঠদান করা হয় তারমধ্যে আইইউবি একটি যা অধ্যাপক রাজুর নেতৃত্বেই পড়ানো হয়। বাংলাদেশ-কোরিয়া সাংস্কৃতিক সম্পর্ক উন্নয়নে অধ্যাপক রাজুর গুরুত্বপুর্ণ অবদানের জন্য কোরিয়ো রাষ্ট্রদূত লি তাকে ধন্যবাদ জানান। স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস এর ডিন অধ্যাপক তৈয়েবুর রহমান সহ  মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন বিভাগের প্রভাষক ও কে-ক্লাবের সমন্বয়ক রাইয়ানা রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।