দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ

বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে দুই দফা দাবি জানিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করেন তারা। এর আগে একই দিন বেলা সোয়া ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে অবস্থান কর্মসূচি করেন শিক্ষার্থীরা।

তাদের দাবিগুলো হলো, রাবিতে দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ দিতে হবে এবং বাছাই প্রক্রিয়া বাতিল করতে হবে।

ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থী ইমন হোসেন বলেন, করোনার কারণে বাংলাদেশ সরকার অন্যায়ভাবে আমাদের নির্ধারিত সময়ের এক বছর পরে ১৪ লাখ শিক্ষার্থীকে অটোপাস দিয়েছে। দেশে যেখানে জাতীয় এবং পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় মিলে ১৪ লাখ সিটই নেই। আর রাবিতে সিলেকশন পদ্ধতি থাকায় জিপিএ-৫ পেয়েও অনেকে পরীক্ষাই দিতে পারেনি। যারা সুযোগ পেয়েছে তাদের অনেকে ভর্তি হতে পেরেছে, আবার অনেকে বিভিন্ন কারণে ভর্তি হতে পারেনি। বর্তমানে এসব শিক্ষার্থীরা মুখ থুবড়ে পড়েছে। আমাদের দাবি একটাই, আমরা দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ চাই।

দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ দিলে যারা প্রথমবারের মতো অংশ নেবে তারা কি বঞ্চিত হবে না? এমন প্রশ্নের জবাবে এই শিক্ষার্থী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যদি নিয়ম করে দেয়, আমরা যারা দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা দেব; তাদের পাঁচ মার্ক কেটে নেওয়া হবে। আমরা সেই শর্তেও রাজি আছি। আমরা চাই আমাদের দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগ দেওয়া হোক।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, আমি আন্দোলনরত ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেছি এবং তাদের দুজন প্রতিনিধিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করতে বলেছি। এটি একটি দীর্ঘ প্রক্রিয়ার বিষয়। সিন্ডিকেটে ভর্তি-ইচ্ছুকদের এই দাবিটি উত্থাপন করতে হবে। যদি অধিকাংশ সিন্ডিকেট সদস্য এর পক্ষে মতামত দেয় তবেই তারা দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ পাবে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার দ্বিতীয়বার ভর্তির সুযোগের দাবিতে রাবি উপাচার্যকে স্মারকলিপি প্রদান করে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা। গতকাল মঙ্গলবার উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে কোনো ইতিবাচক সাড়া না পেয়ে তারা আজ এই কর্মসূচি পালন করছেন।