নিউ মার্কেটে ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন

নিউ মার্কেটে ব্যবসায়ী-শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন

প্রায় তিন ঘণ্টাব্যাপী নিউ মার্কেট এলাকার বিভিন্ন মার্কেটের ব্যবসায়ী-কর্মচারী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ চলছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বেলা পৌনে ১টার দিকে ঘটনাস্থলে এসেছে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য। তবে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা এখনও মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছেন।
জানা গেছে, গতকাল সোমবার (১৮ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে নিউমার্কেটে ঢাকা কলেজ তিন শিক্ষার্থীর কাপড় কিনতে গেলে দোকানের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় তিন শিক্ষার্থীকে মারধর করে ব্যবসায়ীরা। পরে ঢাকা কলেজের আবাসিক শিক্ষার্থীরা নিউমার্কেট এলাকায় এসে ভাংচুর চালায়। শুরু হয় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ। দফায় দফায় চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। এসময় রাবার বুলেট ও টিয়ারগ্যাস ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই ঘটনার জেরে আজ মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল থেকে শিক্ষার্থীরা সড়কে নেমে আসে। সকাল থেকেই সায়েন্সল্যাব এলাকায় সড়ক বন্ধ করে দেন তারা।

ব্যবসায়ীদের বলছেন, সকালে ব্যবসায়ীদের মার্কেটে প্রবেশে বাধা দেয় শিক্ষার্থীরা। পরবর্তী সময়ে ব্যবসায়ীরা সংঘবদ্ধ হয়ে শিক্ষার্থীদের ধাওয়া দেয়।

এরপর দুই পক্ষের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে দফা-দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া দেন। এসময় অনেককে লাঠি সোটা নিয়েও ধাওয়া দিতে দেখা গেছে। উভয়পক্ষ বিভিন্ন ভবনের ছাদে অবস্থান নিয়ে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। ব্যবসায়ী ও দোকানের কর্মচারীরা মার্কেটের ছাদে এবং বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী ঢাকা কলেজের একাডেমিক ভবনের ছাদে অবস্থান নিয়ে ইট-পাটকেল ছুড়ছেন।

গতকাল রাতের ঘটনার পর পুলিশ ঘোষণা দিয়ে ঘটনাস্থলে অবস্থান নিলেও কোনও পক্ষকে নমনীয় করতে পারেনি। এসময় টিয়ারসেল নিক্ষেপের শব্দ শোনা যায়। সকাল থেকে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন থাকলেও তেমন অ্যাকশনে যেতে দেখা যায়নি তাদের। এ নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পথচারীদের অনেকেই। তারা বলছেন, এত দীর্ঘ সময় ধরে সংঘর্ষ চললেও পুলিশ কার্যকর কোনও ব্যবস্থা নেয়নি।