নির্বাচনে ফ্রান্সের ইসলাম বিদ্বেষী উগ্রপন্থী দলের পরাজয়

সংগ্রহীত

নির্বাচনে ফ্রান্সের ইসলাম বিদ্বেষী উগ্রপন্থী দলের পরাজয়

ফ্রান্সের আঞ্চলিক নির্বাচনের দ্বিতীয় রাউন্ডেও ইসলাম বিদ্বেষী উগ্রপন্থী মেরি লা পেন-এর ন্যাশনাল র্যা লি (আরএন) এর ভরাডুবি হয়েছে। তারা কোথাও বিজয়ী হতে পারেনি। এমনকি এ নির্বাচনে খারাপ পারফরমেন্স করেছে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর দলও।

আল-জাজিরা জানায়, নির্বাচনে বিষ্ময়কর উত্থান ঘটেছে মধ্য-ডানপন্থী রিপাবলিকান ও সোশ্যালিস্ট পার্টির। রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ইতিহাসের সবচেয়ে কম ভোট পড়েছে। বৈধ ভোটারদের মধ্যে শতকরা ৩৫ ভাগেরও কম মানুষ ভোট দিয়েছেন।

গত সপ্তাহের প্রথম দফা আঞ্চলিক নির্বাচনে খুব খারাপ ফলাফল করে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর মধ্যপন্থি লা রিপালিক এন মার্চে (এলআরইএম) পার্টি।

এবার দ্বিতীয় দফার নির্বাচনেও কোনো অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিতে ব্যর্থ হয়েছে তারা। ২০১৫ সালে সর্বশেষ যখন আঞ্চলিক নির্বাচন হয়েছিল তখন ম্যাক্রোঁর দলের অস্তিত্ব ছিল না। ফলে এবারের আঞ্চলিক নির্বাচন তার দলের জন্য প্রথম।

এদিকে নির্বাচনে প্রথমবার আল্পস কোটে ডি’আজুর প্রদেশে বিজয় অর্জন করবেন বলে আশা করেছিলেন মেরি লা পেন। কিন্তু রোববারের ফল তার সেই আশায় বড় রকমের আঘাত নিয়ে এসেছে।

 

তিনি আশা করেছিলেন, ওই প্রদেশে তিনি বিজয়ী হলে ২০২২ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার বিজয়ী হওয়ার আশা আরো সমৃদ্ধ হবে। কিন্তু ওই প্রদেশে আরএনের প্রার্থী থিয়েরি মারিয়ানি হেরে গেছেন রিপাবলিকান রিনাউদ মুসেলিয়েরের কাছে।

এ জন্য প্রতিদ্বন্দ্বীদের দায়ী করেছেন মেরি লা পেন। তিনি বলেছেন, তাকে ও তার দলকে ক্ষমতায় যাওয়া আটকাতে অস্বাভাবিক এক জোট গঠন করেছিল বিরোধীরা।

আগামী বছর এপ্রিলে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হওয়ায় এই আঞ্চলিক নির্বাচনকে গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।