পরকীয়ায় জেরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারলেন স্বামী

সংগ্রহীত

পরকীয়ায় জেরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারলেন স্বামী

পরকীয়ার জেরে চার সন্তানের জননীকে পুড়িয়ে মারলেন স্বামী। মোটরসাইকেল থেকে পেট্রোল ঢেলে লাইটার দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় স্ত্রী ডলির শরীরে।

গত ১৩ মে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় এমন লোমহর্ষক ঘটনা। ঘাতক স্বামীকে সিলেটের জাফলং সীমান্ত থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।

জানা যায়, ওই দম্পতির ২৫ বছরের সংসারে রয়েছে ৪ সন্তান। এরপরও প্রায়ই হতো ঝগড়া। একপর্যায়ে তা গড়াল হত্যাকাণ্ডে।

সিআইডি জানায়, স্বামী মইনুল ইসলামের ভাইয়ের ছেলের সঙ্গে পরকীয়ার জড়ান ডলি। এ নিয়েই পারিবারিক দ্বন্দ্ব চরমে ওঠে। একপর্যায়ে মোটরসাইকেলে থেকে পেট্রোল নিয়ে স্ত্রীর গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন মইনুল।

ডিআইজি হাবিবুর রহমান বলেন, স্বামী মইনুল ইসলামের ভাইয়ের ছেলের সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক রয়েছে। এ রকম সন্দেহের জের ধরে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে প্রায় ঝগড়া লেগে থাকত। ঝগড়ার একপর্যায়ে মোটরসাইকেলে থেকে পেট্রোল নিয়ে স্ত্রীর গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন মইনুল।

আসামির বিরুদ্ধে ১৩টি মাদক মামলাসহ ১৯টি মামলা রয়েছে। তার মধ্যে তিনটি মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি তিনি।

সিআইডি বলছে, সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে আমাদের সমাজের এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।

গত ১৩ মে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ঘটে যাওয়া এই ঘটনায় ভারতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করার সময় সিলেটের জাফলং সীমান্ত থেকে মইনুলকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।