পাকিস্তানি পতাকা ও জার্সি নিয়ে মাঠে আসার প্রতিবাদে স্লোগানে মুখর মিরপুর

পাকিস্তানি পতাকা ও জার্সি নিয়ে মাঠে আসার প্রতিবাদে স্লোগানে মুখর মিরপুর
পাকিস্তানি পতাকা ও জার্সি নিয়ে মাঠে আসার প্রতিবাদে স্লোগানে মুখর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম প্রাঙ্গণ। সিরিজের শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে কোনো বাংলাদেশি যেন পাকিস্তানের জার্সি ও পতাকা নিয়ে মাঠে না ঢুকতে পারে তার জন্য কঠোর হুঁশিয়ারি “পাকিস্তানি দালাল রুখবে তারুণ্য” নামের একটি সংগঠনের।

সিরিজের প্রথম ও দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মিরপুর স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের জার্সি পরে ও পতাকা নিয়ে আসার ঘটনা, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় তোলে। বাংলাদেশে থেকেও যারা এ ধরনের কাজ করছে, তাদের পরিচয় নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তোলেন। বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান। পাকিস্তানি দালাল রুখবে তারুণ্য সংগঠনটি এ ধরনের কাজ যারা করবে তাদের মাঠ থেকে বের করে দেবে বলে জানায়। মাঠে আসা অনেক বাংলাদেশি সমর্থক সংগঠনটির কার্যক্রমের সঙ্গে একাত্মতা জানান।
এদিকে সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষেও লেজেগোবরে অবস্থা বাংলাদেশের। টানা দুই ম্যাচ হেরে এরই মধ্যে সিরিজ খুইয়েছে মাহমুদউল্লাহ বাহিনী। আর তাই সোমবারের (২২ নভেম্বর) তৃতীয় তথা শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি একপ্রকার নিয়ম রক্ষার লড়াই।

বাজে পারফরমেন্সে নিজেদের এক ম্যাচ থেকে আরেক ম্যাচে ছাড়িয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। একটা জয়ের খোঁজে শেষ ম্যাচে উইকেট যেন নিজেদের পক্ষে থাকে এমন কিছুর চেষ্টা মাঠকর্মীদেরও। বছরের শেষ টি-টোয়েন্টিতে জয় পেলে যে মান বাঁচবে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা থেকেও।

টানা দু’দিনে দুই ম্যাচ। শেষ ম্যাচের আগে তাই অনুশীলন করেনি কোনো দল। টিম হোটেলে বাবর আজম-রিয়াদরা বিশ্রাম নিয়েছেন। মোস্তাফিজ-শরীফুলের ইনজুরিতে। সেই সুবাদে একাদশে অভিষেক হতে পারে পেসার শহিদুল ইসলামের। দলে তৃতীয় পেসার প্রয়োজন হলে খেলানো হতে পারে কামরুল ইসলাম রাব্বীকে। আর সাইফের জায়গায় নিশ্চিত ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনের। মাঠে নামার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে ইয়াসির আলী রাব্বীর।