পাস হলো চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট বিল – ২০২১

সংগ্রহীত

পাস হলো চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট বিল – ২০২১
চলচ্চিত্র শিল্পীদের মৃত্যুতে তাদের পরিবারের সদস্যদের সহায়তা দেওয়ার বিধান রেখে সংসদে পাস হয়েছে চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাস্ট বিল ২০২১। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শনিবার (৩ জুলাই) অনুষ্ঠিত অধিবেশনে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিলটি উপস্থাপন করেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আলোচনা শেষে কণ্ঠভোটে পাস হয় বিলটি।
এর আগে, গত ৪ এপ্রিল দেশের চলচ্চিত্র শিল্পীদের কল্যাণে ট্রাস্ট গঠনের লক্ষ্যে সংসদে বিল উত্থাপন করেছিলেন তথ্যমন্ত্রী। পরে বিলটি পরীক্ষা করে ৪৫ দিনের মধ্যে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছিল, ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান হবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী। মন্ত্রণালয়ের সচিব হবেন কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এ পদে নিয়োগ দেবে সরকার। ১৩ সদস্যের বোর্ডের কথা বিলে বলা হয়েছিল। বিলে আরও বলা হয়েছিল, ট্রাস্টে তহবিল আসবে সরকারি অনুদান, দেশি-বিদেশি ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের অনুদান, লভ্যাংশ, ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠান ও সম্পদের আয় থেকে।
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান সময় নিউজকে বলেন,‘আমরা শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে গত কমিটিতে থাকায় অবস্থায় এ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছিলাম। অবশেষে সংসদে বিলটি পাস হয়েছে। সব কৃতিত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। শিল্পীদের প্রতি উনার যে ভালোবাসা আছে, উনি যে শিল্পীদের নিয়ে ভাবেন তার প্রমাণ এই কল্যাণ ট্রাস্ট।’
জায়েদ খান মনে করেন, শিল্পী সমিতির ইতিহাসের সবচেয়ে গৌরবের কাজ এটি। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর পর তথ্যমন্ত্রী, তথ্য সচিব এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সবাইকে শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান তিনি।