পুরো ভিডিওটি দেখতে চান পরীমণি

সংগ্রহীত

পুরো ভিডিওটি দেখতে চান পরীমণি

বোটক্লাব কাণ্ডে পরীমনিকে নিয়ে আলোচনা থামছেই না। সম্প্রতি কিছু ভিডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে নেট দুনিয়ায়। সবশেষ বোট ক্লাবের ভেতরের একটি ক্লিপ প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। মূলত এটি প্রকাশের পরই নানা জল্পনা শুরু হয়েছে পরীমনিকে নিয়ে।

সবশেষ প্রকাশ হওয়া ভিডিওকে কিছু একটা পান করতে দেখা গেছে পরীমনিকে। ভিডিওতে আরও দেখা যায়, পরীমণিকে উদ্দেশ্য করে নাসির বলেন, ‘হোয়াট ইজ দিস, প্লিজ স্টপ, ডোন্ট ডু দিস, ইটস টু মাচ।’ উত্তরে পরীমনি বলেন, ‘অ্যাই যা…যা! বেরিয়ে যা!’ মদ না পেয়ে নাসির ইউ মাহমুদের দিকে বোতল ছুড়ে মারেন পরীমণি।

এ প্রসঙ্গে পরীমনি দেশীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘কয়েক সেকেন্ডের বিভ্রান্তিকর অস্পষ্ট ক্লিপ নয়, আমি পুরো ভিডিওটি চাই। শুরু থেকেই বলে আসছি, ক্লাবের ভেতরের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করার জন্য। যদি কয়েক সেকেন্ড পাওয়া যায়, তাহলে নিশ্চয়ই পুরো ফুটেজই আছে। আমি সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ করে আবারও বলছি, দয়া করে পুরো ফুটেজ প্রকাশ করুন। সবাই সত্যটা জানুক কী ঘটেছে সেই রাতে।’

এর আগে বোট ক্লাবের সিসিটিভি ক্যামেরার আরও একটি ফুটেজ প্রকাশ পায়। ওই ফুটেজে দেখা যায়, ৯ জুন রাত ১২টা ২২ মিনিটে ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে একটি কালো গাড়ি দাঁড়ায়। সেই গাড়ি থেকে পরীমণি, জিমি ও অমিকে নামতে দেখা যায়। কিছুক্ষণ পর গাড়ি থেকে বের হন বনিও। ক্লাবের রিসিপশনেও অমির সঙ্গে পরীমণিসহ অন্যদের ঢুকতে দেখা গেছে ওই ফুটেজে।

এদিকে পরীমনির দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে নাসির ও অমিকে। বুধবার (২৩ জুন) তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক কামরুল ইসলাম। শুনানি শেষে পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব হাসান।