পোলার্ড ঝড়ে চেন্নাইয়ের ২১৮ রান টপকে মুম্বাইয়ের জয়

সংগ্রহীত

পোলার্ড ঝড়ে চেন্নাইয়ের ২১৮ রান টপকে মুম্বাইয়ের জয়

কাইরন পোলার্ডের ব্যাটিং তাণ্ডবে চেন্নাই সুপার কিংসের ২১৮ রান টপকে ৪ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

শনিবার (০১ মে) দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করা চেন্নাই নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ২১৮ রান করে।জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে শেষ বলে ২১৯ করে জয় নিশ্চিত করে মুম্বাই।

২১৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করলেও মাঝে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় মুম্বাই। তবে দেখেশুনে খেলতে থাকা পোলার্ড এক পর্যায়ে বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন। শেষ ওভারে জয়ের জন্য ১৬ রান দরকার হলে প্রায় একাই সেই রান তুলে নেন। শেষ পর্যন্ত ক্যারিবীয়ান ব্যাটসম্যান ৩৪ বলে ৬টি চার ও ৮টি বিশাল ছক্কায় ৮৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

দলের হয়ে এছাড়া ২৮ বলে ৩৮ করেন ওপেনার কুইন্টন ডি কক। আরেক ওপেনার ও অধিনায়ক রোহিত শর্মা ২৪ বলে ৩৫ রান করেন।

চেন্নাই পেসার স্যাম কারেন ৩টি উইকেটের দেখা পান।

টস হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি চেন্নাই। ব্যক্তিগত ৪ রানে ট্রেন্ট বোল্টের বলে ফিরে যান ওপেনার ঋুতুরাজ গায়কড়। তবে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে মঈন আলীকে নিয়ে ঝড় তোলেন ফাফ ডু প্লেসি। এ জুটি ১০৮ রান তোলে।

৩৬ বলে ৫টি চার ও সমান ছক্কায় ৫৮ রান করে জসপ্রিত বুমরাহর বলে আউট হন মঈন। আর কাইরন পোলার্ডের বলে আউট হওয়ার আগে প্লেসি ২৮ বলে ২টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৫০ করেন।

মাঝে সুরেশ রায়না দ্রুত ফিরে গেলেন হাল ধরেন আম্বাতি রায়ডু। পঞ্চম উইকেট জুটিতে রবীন্দ্র জাদেজার সঙ্গে দলের সংগ্রহ বাড়ান। ঝড়ো ব্যাট করে মাত্র ১৯ বলে ফিফটি করেন এই ডানহাতি। ৫৬ বলে ১০২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন তারা। শেষ পর্যন্ত রায়ডু ২৭ বলে ৪টি চার ও ৭টি ছক্কায় ৭২ রানে অপরাজিত থাকেন। তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে ২২ বলে ২২ করেন জাদেজা।

মুম্বাই বোলার কাইরন পোলার্ড ২টি উইকেট দখল করেন। একটি করে উইকেট পান বোল্ট ও বুমরাহ।

ব্যাটে-বলে দারুণ পারর্ফম করে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন পোলার্ড।

এ জয়ে ৭ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে চারে রয়েছে মুম্বাই। অবশ্য হারলেও শীর্ষে চেন্নাই। সমান ম্যাচে তারা ১০ পয়েন্ট অর্জন করেছে।