বন্দুকধারী নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে স্কুলে যেতেন সোনাক্ষী

সংগ্রহীত

বন্দুকধারী নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে স্কুলে যেতেন সোনাক্ষী

বলিউডে তিনি ‘রাজ্জো’। মানে দাবাং ছবির নায়িকা। শত্রুঘ্ন-কন্যার পরিচিতি থেকে বেরিয়ে নিজের পরিচয়ের সবচেয়ে বড় ব্যানার তো এটাই সোনাক্ষী সিনহার। তবে শৈশবেও কম জনপ্রিয় ছিলেন না। সঙ্গে সব সময় বন্দুকধারী নিরাপত্তারক্ষীরা ঘুরতেন। সোনাক্ষী যেখানেই যান না কেন, চোখে চোখে রাখতে হবে তাঁকে!
যদিও এতে সবচেয়ে বেশি অখুশি ছিলেন সোনাক্ষী নিজেই। স্কুলে, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায়, বাজারে—সব জায়গায় এই চোখে চোখে রাখাটা বেজায় বিরক্ত লাগে তাঁর! বন্ধুদের সঙ্গে এ কারণে চুটিয়ে আড্ডাও দিতে পারছেন না। বাবা মন্ত্রী। তাই কড়া পাহারা তাঁর জন্য! কিন্তু সোনাক্ষী জানান, সে সময় তাঁর প্রথম লড়াই ছিল, কী করে এই বেষ্টনী থেকে বের হওয়া যায়।

গতকাল ২ জুন ছিল এই নায়িকার জন্মদিন। তাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও গণমাধ্যমে সোনাক্ষীকে নিয়ে আলোচনা চলে। উঠে আসে এ প্রসঙ্গটিও।

জানা যায়, কারিনা কাপুর খানের রেডিও শোতে সোনাক্ষী গত বছর বলেছিলেন, ‘আমার খুবই অস্বস্তি লাগত যে শৈশবে আমি যেখানেই যাই না কেন, আমার সঙ্গে কেউ থাকবেই।

আমার বাবা যখন মন্ত্রী হলেন, তখন আমি ক্লাস সিক্স কিংবা সেভেনে পড়ি। হঠাৎ বন্দুকধারী সব নিরাপত্তারক্ষী আমার সঙ্গে আসা-যাওয়া শুরু করল। আমি স্কুলে যাচ্ছি আর একটা গাড়িভর্তি নিরাপত্তারক্ষী আমার পেছনে পেছনে ছুটছে। গোটা স্কুল কী যে ভাবত! আমি সোজা মায়ের কাছে গিয়ে বলেছিলাম, আমি স্কুলে যাব না, যতক্ষণ না এটা বন্ধ করো। তারপর এটা বন্ধ হয়। আমি মনে করি, এটা ছিল আমার প্রথম স্বাধীনতার স্বাদ।’

শুধু তা-ই নয়, স্কুল পেরিয়ে কলেজে ভর্তি হওয়ার সময় মজার কাণ্ড করেছিলেন সোনাক্ষী। তাঁর শখ ছিল, ট্রেনে করে কলেজে যাবেন। তাই বাড়ি থেকে অনেক দূরের একটি কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি।

সোনাক্ষী সিনহা

জোয়া আখতারের পরিচালনায় একটি ছবিতে দেখা যাবে তাঁকে। এ ছাড়া মুক্তির অপেক্ষায় আছে ভুজ: দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া ছবিটি। নেটফ্লিক্সের ছবি বুলবুল-তরঙ্গতেও দেখা যাবে তাঁকে।
২০২০ সালে সোনাক্ষী সিনহা বলিউডে পথচলার এক দশক পূর্ণ করলেন। এই ১০ বছরে সোনাক্ষীর অর্জন কম নয় । সিনেমা ও এন্ডোর্সমেন্ট থেকে তাঁর মোট আয় দাঁড়িয়েছে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৮৪ কোটি ৭০ লাখ টাকার সমান। এর ভেতর ৪০ কোটি টাকার সম্পদ আছে তাঁর। প্রথম ছবি ‘দাবাং’ বক্স অফিসে হিট হওয়ার পরই ১৪ কোটি টাকা দিয়ে মুম্বাইয়ে কিনেছেন বিলাসবহুল বাড়ি । এই তারকার সংগ্রহে আছে বেশ কয়েকটি গাড়ি। একটি করে বিএমডব্লিউ, রেঞ্জ রোভার, মার্সিডিজ, মিনি কুপার ও অডি।

সোনাক্ষী মডেল হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন, ২০০৮ সালে ল্যাকমে ফ্যাশন উইকে র‍্যাম্পে হাঁটেন তিনি এবং তারপর আবার ২০০৯ সালেও র‍্যাম্পওয়াক করেন। ২০১০ সালে সালমান খানের সঙ্গে ‘দাবং’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল সোনাক্ষীর ।

এ ছবিতে গ্রামের তরুণী রাজজো চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ৩০ কেজি ওজন কমিয়েছিলেন তিনি। সে বছর অভিনয়ের জন্য তিনি সেরা নারী নবাগত হিসেবে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। এরপর বলিউডে একাধিক হিট ছবির নায়িকা হিসেবে কাজ করে আসছেন শত্রুঘ্ন সিনহার মেয়ে অভিনেত্রী সোনাক্ষী। সোনাক্ষীকে এবার দেখা যাবে ‘ভুজ: দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া’ সিনেমায় ।