বাঁচি-মরি আমার শরীরে টিকা প্রবেশ করতে দেব না : রিজভী

সংগ্রহীত

বাঁচি-মরি আমার শরীরে টিকা প্রবেশ করতে দেব না : রিজভী

ন্যায়সঙ্গতভাবে আমি যে টিকার বিরোধিতা করেছি বাঁচি আর মরি ওই টিকা আমার শরীরে প্রবেশ করতে দেব না মন্তব্য করে  বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন আমি আমার কথা রেখেছি। 

সোমবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম আয়োজিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ সব অসুস্থ নেতাকর্মীদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, আমি যতটুকু জানি, অন্য দু-একটি দেশে যেখানে ভারত টিকা দিয়েছে সেখানে কিন্তু টিকা প্রয়োগ বন্ধ করে দিয়েছে। নতজানু সরকার থাকলে, আত্মসমর্পণকারী সরকার থাকলে তারা এগুলোর কিছুই পরোয়া করে না। তারা প্রহসন করছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নাকি ভ্যাকসিন নিয়েছেন। কিভাবে নিয়েছেন সেটা কিন্তু তিনি জানাননি। গত পরশুদিন মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক (মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী) তার ওখানে সিরিঞ্জ দেখানো হয়েছে, কিন্তু তা পুশ করার কোনো ছবি নেই। কারণ ওরা নিজেরাও ভীত-সন্ত্রস্ত।  ওরা নিজেরাও জানে এই টিকা ‘দুই নম্বর’। এই টিকার কার্যকারিতা নেই। এদের মতো নাটক আর কেউ করতে পারবে না।  বড় বড় অভিনেতা রাজ্জাক, অমিতাভ বচ্চন এরা সব ফেল আওয়ামী লীগের কাছে।

 রিজভী বলেন, জাতির এই অন্ধকার দুঃসময়ে গুণ্ডারা এখন মেয়র হয়, মাফিয়ারা হয়। বিনাভোটে মন্ত্রী-এমপি কিংবা মেয়র যারা  হন তাদের মধ্যে কোনও মানবতা থাকে না। ন্যূনতম সংস্কৃতিবোধ থাকে না। তারা সবসময় মানুষের সঙ্গে গুণ্ডা-মাফিয়ার মতো আচরণ করে।

রিজভী আরও বলেন, ঘর থেকে বের হলে কেন যেন পরিচিত একটি দেশে বাস করছি বলে মনে হয় না। একটা স্বাভাবিক পরিবেশের মধ্যে আমরা আছি বলে মনে হয় না। গাড়িতে যখন আসি ডান দিকে বাম দিকে সবসময় উঁকি দেই। মনের মধ্যে আতঙ্ক থাকে, গাড়ি থামিয়ে গাড়ি থেকে বের করে ফেলবে কিনা বা গাড়ির ওপর আক্রমণ করবে কিনা? অথবা সিএনজিতে আছি, সিএনজি থামিয়ে আমাকে অদৃশ্য করে দেবে কিনা? এসব আতঙ্ক এসব ভয় আমাদেরকে প্রতিনিয়ত গ্রাস করে চলে।

আয়োজক সংগঠনের সদস্য ও বিএনপির স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপুর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ  প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।