বাইডেনকে পরমাণু চুক্তিতে ফেরার আহ্বান ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

সংগ্রহীত

বাইডেনকে পরমাণু চুক্তিতে ফেরার আহ্বান ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তিতে ফেরার আহ্বান জানিয়েছে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ।

রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল না করা হলে পরমাণু শক্তির বিষয়ে কঠোর অবস্থানে যাবে বলে জানিয়েছে ইরান।

তেহরানের জাতীয় পত্রিকা হামশাহরিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জাভেদ জারিফ বলেন, ‘সংসদে চুক্তি এবং ইরানি নববর্ষ—উভয় কারণে আমেরিকানদের জন্য সময় ফুরিয়ে আসছে। ’ ইরানের নববর্ষ শুরু হয় ২১ মার্চ।

যুক্তরাষ্ট্র আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করার জন্য গত ডিসেম্বরে ইরানি সংসদ এক আইনে দুই মাসের সময় বেঁধে দিয়েছিল।

২০১৫ সালে ছয় বিশ্বশক্তির সঙ্গে তেহরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি থেকে ২০১৮ সালে বেরিয়ে আসেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ইরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আবারও ওই পরমাণু চুক্তিতে ফেরার কথা ভাবছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার জবাবে পরমাণু চুক্তির শর্ত ভেঙে ইউরেনিয়াম ২০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানোর কার্যক্রম ফের শুরু করে তেহরান। ইরানকে এ চুক্তির শর্তগুলো যথাযথভাবে মানার আহ্বান জানিয়েছেন জো বাইডেন। তবে, ইরান জানিয়েছে, ওয়াশিংটন যদি নিষেধাজ্ঞা শিথিল না করে, তবে পরমাণু চুক্তি মানবে না তেহরান।

শুরু থেকেই ইরানের প্রতি কঠোর নীতি অবলম্বন করেছিল ট্রাম্প প্রশাসন। এমনকি ২০১৯ সালের ১ আগস্ট ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন ট্রাম্প।