বিএনপির সম্মেলন ও নেতাদের বাড়িতে আ.লীগের হামলার অভিযোগ

বিএনপির সম্মেলন ও নেতাদের বাড়িতে আ.লীগের হামলার অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতায় বিএনপির সম্মেলনে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা। সভা শুরু হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তেই জয়বাংলা স্লোগান দিয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা ও ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয় সভাস্থলে।

বিএনপি নেতারা জানান, শনিবার সকালেই ভুলতায় পূর্বনির্ধারিত জায়গায় সম্মেলনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেন ইউনিয়ন বিএনপির নেতাকর্মীরা। দুপুরে সম্মেলন শুরু হওয়ার ঠিক আগে দশীয় অস্ত্র-সস্ত্রসহ ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালান।

এ সময় তারা সম্মেলনের জন্য তৈরি করা স্টেজ, প্যান্ডেল ভাঙচুর করেন। হামলার পর ব্যানার ফেস্টুনসহ বিভিন্ন জায়গায় আগুন ধরিয়ে দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এর পরপরই নেতাকর্মীদের বাড়িতে দফায় দফায় হামলা চালানো হয়। হামলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি জানান, আওয়ামী লীগের, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ভুলতা ইউনিয়ন বিএনপির সম্মেলনে হামলা চালিয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

ভুলতা ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক আব্বাস জানান, মাসুমপুর থেকে প্রায় ৭০-৮০ জন আমার এখানে হামলা করে। দা-চাইনিজ কুড়াল নিয়ে আক্রমণ চালায় তারা। জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে মিছিল করে এসে তাণ্ডব চালানো হয়। আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের ছেলেরা এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। দুই দফায় আমার বাড়িতে হামলা করে সব আসবাবপত্র ও ঘরবাড়ি ভাঙচুর করেছে।

এদিকে হামলার বিষয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল জানান, এটি তাদের অন্তঃকোন্দল হতে পারে। এ ধরনের ঘটনায় আমাদের নেতাকর্মীরা জড়িত বলে আমরা বিশ্বাস করি না৷

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান, বিস্তারিত এখনি বলা যাচ্ছে না, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।