বিজয় দিবসে বিজিবির মিষ্টি নিয়ে লাশ দিল বিএসএফ

সংগ্রহীত

বিজয় দিবসে বিজিবির মিষ্টি নিয়ে লাশ দিল বিএসএফ

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে দিনাজপুরের হিলি সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে (বিএসএফকে) মিষ্টি উপহার দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

অপরদিকে একই দিন লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে জাহিদুল ইসলাম (২০) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। পরে তার লাশ টেনেহেঁচড়ে নিয়ে যায় বিএসএফ।

বিজিবি জানায়, বুধবার ভোর ৫টার দিকে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন সীমান্তের ৮৫২ নম্বর মেইন পিলার ও সাব পিলার ৫ নম্বরের কাছে ভারতীয় গরু ব্যবসায়ীদের সহায়তায় বাংলাদেশি গরু পারাপারকারী ৭/৮ জনের একটি দল ভারত থেকে গরু আনতে যান।

পারাপারকারী দলের সদস্যরা রতনপুর বিএসএফ ক্যাম্পের মাঝামাঝি সীমান্তে পৌঁছালে ভারতের ১৪০ রাণীনগর বিএসএফ ব্যাটালিয়নের রতনপুর ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

এতে শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মধ্য ইসলামপুর গ্রামের জাহিদুল ইসলাম গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান। জাহিদুল ইসলামপুর গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে।

বিএসএফের ছোড়া গুলিতে ভারতীয় একজন ও বাংলাদেশি আরও একজন গরু পারাপারকারী আহত হয়েছেন বলে সংশ্লিষ্ট সীমান্ত সূত্রগুলো জানিয়েছে।

তবে আহতদের নাম-ঠিকানা জানা যায়নি। নিহত বাংলাদেশির লাশ ভারতীয় সীমান্ত অংশে দুপুর পর্যন্ত পড়ে ছিল। দুপুর ১টায় ভারতের মেখলিগঞ্জ থানা-পুলিশ এসে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

পাটগ্রামের শমসের নগর বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের (বিজিবি) কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার আজহারুল গণমাধ্যমে সীমান্তে বাংলাদেশি গরু পারাপারকারী নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বিজিবি ৬১ ব্যাটালিয়নের পক্ষ থেকে কড়া প্রতিবাদপত্রসহ ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। পতাকা বৈঠকের পর লাশ ফেরত পাওয়া যাবে বলেও জানান তিনি।