বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন রণবীর-আলিয়া

বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন রণবীর-আলিয়া
অবশেষে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট। এখন তারা আনুষ্ঠানিক ভাবে স্বামী-স্ত্রী।
লগ্ন অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) দুপুর ৩.৩০ মিনিটে শুরু হয় রণবীর-আলিয়ার বিয়ের অনুষ্ঠান। কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই সাত পাকে বাঁধা পড়লেন তারা। বছর চারেক প্রেমের পর একে-অপরের গলায় মালা দেওয়ার মধ্য দিয়ে ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস কাপুর’ হলেন রণবীর-আলিয়া।
জানা যায়, আলিয়া ও রণবীরের পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে মুম্বাইয়ের কাপুরদের বান্দ্রার বাড়ি ‘বাস্তু’তে হয় বিয়ের অনুষ্ঠান। সেখানে উপস্থিত ছিলেন নীতু কাপুর, মহেশ ভাট, সোনি রাজদান, শাহিন ভাট, ঋদ্ধিমা কাপুর, কারিনা কাপুর, কারিশমা কাপুর, রণধীর কাপুর, পূজা ভাট, রাহুল ভাট, লাভ রঞ্জন, আয়ান মুখোপাধ্যায়রা।
রণবীরের চাচা রণধীর কাপুর বলেন, আজ আমাদের পরিবারের একটা বড় দিন। চিন্টুকে (ঋষি কাপুর, রণবীরের বাবা) প্রতিদিন মিস করি। তবে আজকে একটু বেশিই মিস করছি। কিন্তু কী আর করা যাবে, জীবন তো তার নিয়মেই চলতে থাকে। তবে রণবীর-আলিয়া নতুন জীবন শুরু করছে দেখে ভালো লাগছে। চিন্টু এই দিনটা দেখে যেতে পারলে ভালো হত।
বাড়ির ভিতরে বিয়ের আয়োজন হলেও, বাইরে ছবির জন্য অপেক্ষা করা পাপারাৎজি ও সংবাদকর্মীদের জন্য মিষ্টির বক্স দেওয়া হয়েছে। খুব কম সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতেই হয়েছে এই বিয়ে।
‘বাস্তু’র বাইরে এদিন সকাল থেকেই ছিল কড়া পাহাড়া। আলিয়া-রণবীরের ব্যক্তিগত রক্ষীরা তো ছিলই, সঙ্গে পুলিশ ফোর্সও মোতায়েন করা হয়েছিল সেখানে। এখন শুধু বিয়ের ছবি সামনে আসার অপেক্ষা।