বৃষ্টিতে ঢাকার বিভিন্ন রাস্তায় পানি

সংগ্রহীত

বৃষ্টিতে ঢাকার বিভিন্ন রাস্তায় পানি

রাজধানীতে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকেই ঝুমবৃষ্টি। গ্রিনরোড, পান্থপথ, ধানমন্ডি, তেজতুরী বাজার, বনানীর কিছু অংশ, মহাখালীর চেয়ারম্যানবাড়ি, মালিবাগসহ বিভিন্ন এলাকায় রাস্তায় পানি জমেছে। রিকশা ও গাড়ির চাকা অর্ধেকের বেশি ডুবে গেছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, বৃষ্টি আরও হতে পারে।

বৃষ্টিতে রাজধানীতে অফিসগামী যাত্রীরা বিপাকে পড়েন। অনেকেই বেশি ভাড়া দিয়ে অফিসে আসেন। রাস্তায় পানি জমে যাওয়ায় অফিস যেতেও ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে।বিজ্ঞাপন

অরূপ রায়ের অফিস রাজধানীর কারওয়ান বাজারে। তিনি জানান, তেজতুরী বাজারে প্রায় কোমরসমান পানি জমেছে। প্রায় দ্বিগুণ ভাড়া দিয়ে তাঁকে অফিসে আসতে হয়েছে।

লালবাগ থেকে কারওয়ানবাজারে অফিসে আসার পথে বিভিন্ন রাস্তায় জমে থাকা পানিতে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে সাইদ আহমেদকে। লালবাগে হাঁটুসমান পানি জমেছে বলে তিনি জানান। রিকশাভাড়াও তাঁকে বেশি দিতে হয়েছে।

অফিসে আসার পথে অনেকেই রাস্তায় পানি জমে থাকার ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছেন। একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী অফিসে আসার পথে ঢাকার রাস্তায় জমে থাকা পানির ভিডিও করে লিখেছেন ‘উচ্ছল সাগরের দোলাতে দোদুল…’।

আবহাওয়া অধিদপ্তর আজ সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, সিলেট, ময়মনসিংহ, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও মাঝারি ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

আজ সকাল নয়টা পর্যন্ত দেশের ১৯টি অঞ্চলের নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। আগামী দুদিনে আবহাওয়ার কিছু পরিবর্তন হতে পারে।

দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, দিনাজপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর, ঢাকা, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। ফলে এসব এলাকার নদীবন্দরকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়।বিজ্ঞাপন

গতকাল সোমবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় উল্লেখযোগ্য বৃষ্টিপাত হয়েছে নেত্রকোনায় ৯৭ মিলিমিটার, রাজারহাটে ৬৮ মিলিমিটার, বরিশালে ৬৬ মিলিমিটার, ডিমলায় ৫৩ মিলিমিটার, সাতক্ষীরায় ৪৬ মিলিমিটার, সীতাকুণ্ডে ৪২ মিলিমিটার, ঢাকায় ৪৩ মিলিমিটার, সন্দ্বীপ ও মাদারীপুরে ২৪ মিলিমিটার।