বেছে বেছে ফিলিস্তিনিদের হত্যা করছে ইসরাইলি ছদ্মবেশী বাহিনী

সংগ্রহীত

বেছে বেছে ফিলিস্তিনিদের হত্যা করছে ইসরাইলি ছদ্মবেশী বাহিনী

যুদ্ধবিরতির পর ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে গোপন তৎপরতা আরও বাড়িয়েছে ইসরাইলের ছদ্মবেশী এলিট বাহিনী। ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনের সদস্যদের বেছে বেছে একের পর এক টার্গেট কিলিং চালাচ্ছে ইসরাইলি বাহিনী।

এই বাহিনীর হাতে সর্বশেষ টার্গেট কিলিংয়ের শিকার হয়েছেন পশ্চিম তীরের আল-আমারি রিফিউজি ক্যাম্পের ২৪ বছর বয়সি টগবগে যুবক আহমেদ জামিল ফাহদ। সুযোগ মতো তাদেরকে বাড়ি বা কর্মস্থল থেকে উঠিয়ে নিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হচ্ছে।

ফাহাদের পরিবার জানায়, ইসরাইলের একদল ছদ্মবেশী এজেন্ট তাকে আটক করে নিয়ে যায়। এরপর ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তাকে পেছন থেকে বেশ কয়েকটি গুলি করা হয়। গুলি করার পর তাকে রামাল্লার উম-আল শারায়িত এলাকায় ফেলে রাখা হয়। প্রচুর রক্তক্ষরণ হয় তার। হাসপাতালে নেওয়ার আগেই মারা যান ফাহাদ।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুদ্ধবিরতির পর গত মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেনের ইসরাইল সফরের কয়েক ঘণ্টা আগে পশ্চিম তীরের রামাল্লা শহরের আল-আমারি রিফিউজি ক্যাম্পের ছেলে আহমেদ ফাহাদকে গুলি হত্যা করে ইসরাইলি বাহিনী।

ইসরাইলের চলতি মাসেই অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেম নতুন একটি মহল্লা দখলকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা থেকে গাজায় বিমান হামলা শুরু করে ইসরাইল।