বেড়ায় নৌকার নির্বাচনী ক্যাম্পে বিস্ফোরণ, আহত ২

আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফারুক হোসেন বলেন, ‘আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইদ্রিস সরদার আমার জনপ্রিয়তায় দিশেহারা হয়ে বিএনপি-জামায়াতের লোকজন ও সন্ত্রাসীদের নিয়ে আমার নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে আমি এ ঘটনার দ্রুত বিচার দাবি করছি।’

এ বিষয়ে ইদ্রিস সরদার বলেন, ‘আমাকে ফাঁসানোর জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই আমার নামে মিথ্যা মামলা দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে ওই এলাকায় আমার কোনো কর্মী পোস্টার লাগাতে ও প্রচার করতেই যায় না। ওরা নিজেরাই ঘটনা ঘটিয়ে আমার কর্মীদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। এটা আসলে পুরোপুরি সাজানো নাটক।’

৫ জানুয়ারি বেড়া উপজেলার নয়টি ইউপিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নয়টি ইউপির মধ্যে পুরানভারেঙ্গা ও মাশুন্দিয়া ইউপিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুজন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।