ব্রিটেনে নতুন করে আরো একটি কভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসের সন্ধান

সংগ্রহীত

ব্রিটেনে নতুন করে আরো একটি কভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসের সন্ধান

এটা এখন অনেকেই জানেন যে ভাইরাস সবসময়ই নিজেকে পরিবর্তন করে নতুন রূপ নিতে থাকে – যাকে বলে ‘মিউটেশন’।

কখনো কখনো এই নতুন রূপ নেয়া ভাইরাস আগেরটার চাইতে বেশি ভয়ঙ্কর হয়, বা আগের চাইতে ‘নিরীহ’ও হয়ে যেতে পারে। এমন কিছু মিউটেশনও হতে পারে যার আদৌ কোন প্রভাব পড়ে না।

দ্য অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিক্সের (ওএনএস) এক গবেষণায় বলা হয়েছে “করোনা ভাইরাস নতুন রুপ খুবই সাধারন। নতুন রূপের করোনা জন্য পজিটিভ পরীক্ষা করে এমন লোকদের মধ্যে কাশি, অবসন্নতা, গলা ব্যথা এবং পেশীর ব্যথা বেশি হতে পারে।সাধার ভাবেই ভাইরাসটি আক্রান্ত করতে পারে।

ওএনএসের ফলাফলগুলি ইংল্যান্ডের ৬,০০০ মানুষের এলোমেলো নমুনা থেকে নেওয়া ইতিবাচক পরীক্ষার উপর ভিত্তি করে এমন তথ্য দিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে করোনায় আক্রান্ত হলে খাবারে স্বাদ এবং গন্ধ হ্রাস ভাইরাস এর নতুন ফর্ম সঙ্গে তাদের প্রভাবিত করতে সামান্য কম হতে পারে।

এটি কোভিড -১৯ এর প্রধান তিনটি লক্ষণের মধ্যে একটি ।এবং খুব সাধারন তেমন উপসর্গ না থাকলেও আপনাকে ঘায়েল করে দিবে। আপনার ভিতরটাকে নতুন ভাইরাসটি এমন ভাবে ধরবে। কস্টটা শুধু ভুক্তভোগিরাই জানেন। এছাড়া এই নতুন ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ও অনেক বেশী।

এনএইচএস ওয়েবসাইট কোভিডের লক্ষণগুলিকে উচ্চ তাপমাত্রা, একটি নতুন ক্রমাগত কাশি এবং ক্ষতি বা গন্ধ বা স্বাদ অনুভূতিতে পরিবর্তন হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে।