ভারত অবস্থা বুঝে বাংলাদেশসহ চারটি দেশে টিকা রপ্তানি শুরু করল

ভারত অবস্থা বুঝে বাংলাদেশসহ চারটি দেশে টিকা রপ্তানি শুরু করল
বাংলাদেশসহ চারটি দেশে টিকা রপ্তানি শুরু করেছে ভারত। দীর্ঘ আট মাস পর টিকা রপ্তানি শুরু করল দেশটি। চলতি বছরের শুরুতে দেশটিতে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় টিকা রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছিল।
চলতি বছরের মার্চ-এপ্রিলে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সরকার টিকা রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছিল। নিজেদের (ভারত) যেন টিকা সংকটে পড়তে না হয় সে কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রপ্তানি বন্ধকালীন ভারতে ১০০ কোটি ডোজ টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি শিথিলে হওয়ায় এবার দেশটি পুরোদমে টিকা রপ্তানির পথে পা বাড়াল।

ভারত প্রথমে কোভ্যাক্সের আওতায় আফ্রিকার দেশগুলোতে টিকা রপ্তানি শুরু করেছিল। এ পর্যায়ে দেশটি মিয়ানমার, বাংলাদেশ, নেপাল ও ইরানে টিকা রপ্তানি শুরু করেছে।

এদিকে ভারত  টিকা উৎপাদনেও পর্যাপ্ত সক্ষমতা অর্জন করেছে। এরইমধ্যে আরও বেশ কিছু টিকা অনুমোদন পেয়েছে। এগুলো হলো- কোভাভ্যক্স, করবিভ্যাক্স, জিকভডি, জেনোভাস এমএরএসএ ভ্যাক্সিন।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলায় তৈরি ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের কোভিশিল্ড টিকার ওপর ভরসা করেছিল বাংলাদেশ। উপহার ও চুক্তির ভিত্তিকে কিছু টিকাও পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ভারত হুট করে চুক্তি থেকে সরে পড়ে। সংকটে পড়ে বাংলাদেশ। পরে চীনসহ অন্যান্য উৎস থেকে টিকাপ্রাপ্তি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ সরকার।