মডেল রোমানা স্বর্ণার কুকর্মের অসংখ্য অভিযোগ থানায়

সংগ্রহীত

মডেল রোমানা স্বর্ণার কুকর্মের অসংখ্য অভিযোগ থানায়

প্রতারণার মাধ্যমে এক সৌদি প্রবাসীর কাছ থেকে দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগের মামলায় গ্রেপ্তার মডেল ও অভিনেত্রী রোমানা ইসলাম স্বর্ণার বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ থানায় জমা পড়ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মডেল রোমানা ইসলাম স্বর্ণা ব্ল্যাকমেইল করে বিয়ে করেন সৌদি প্রবাসী কামরুল হাসান (৪৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে। এরপর থেকেই আমূল পরিবর্তন স্বর্ণার জীবনযাপনে। চলাফেরায়ও আসে বিলাসিতা চাকচিক্য। আর এসব হয় কামরুলের থেকে হাতিয়ে নেয়া টাকা দিয়ে।

সাবেক স্বামীর মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর স্বর্ণার প্রতারণার সব খবর একের পর এক প্রকাশ হতে থাকে। 

পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ গণমাধ্যমকে বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়েছে। প্রবাসীর কষ্টার্জিত টাকা হাতিয়ে নেয়ায় চক্রটিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরপর থেকে স্বর্ণার আরও প্রতারণার খবর আসছে বলে জানান তিনি।

তবে স্বর্ণার বিরুদ্ধে আরও কারা প্রতারণার অভিযোগ করেছেন সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।  

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লালমাটিয়া ডি-ব্লক-এর একটি বাসা থেকে স্বর্ণাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে রোমানার আরও দুটি বিয়ে হয়েছে বলে জানান সাবেক স্বামী কামরুল।

তদন্তসংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, এ চক্রের সঙ্গে রোমানার পরিবারের বাইরে আরও দুটি নাম আসে। জনৈক রিজভী ও সিহাব বিভিন্নভাবে রোমানা স্বর্ণাকে সহযোগিতা করত বলে জানা গেছে। তবে এদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।