মহাসমাবেশের ঘোষণা বিএনপির

মহাসমাবেশের ঘোষণা বিএনপির

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

যেখানে সমাবেশ হবে : ৮ অক্টোবর চট্টগ্রাম, ১৫ অক্টোবর ময়মনসিংহ, ২২ অক্টোবর খুলনা, ২৯ অক্টোবর রংপুরে, ৫ নভেম্বর বরিশাল, ১২ নভেম্বর ফরিদপুর, ১৯ নভেম্বর সিলেট, ২৬ নভেম্বর কুমিল্লা, ৩ ডিসেম্বর রাজশাহী ও ১০ ডিসেম্বর ঢাকা।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। গণবিরোধী কর্তৃত্ববাদী ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকার কর্তৃক চাল, ডাল, জ্বালানি তেল, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির মূল্য বৃদ্ধি, চলমান আন্দোলনে ভোলায় নুরে আলম, আব্দুর রহিম, নারায়ণগঞ্জে শাওন, মুন্সীগঞ্জে শহিদুল ইসলাম শাওন ও যশোরে আব্দুল আলিম হত্যা প্রতিবাদে আমাদের এই কর্মসূচি হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই সব কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আমরা জনমত গড়ে তুলতে চাই, জনগণকে সম্পৃক্ত করতে চাই। জনগণের সক্রিয় অংশগ্রহণের ফলে গণআন্দোলন সৃষ্টি করে সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে চাই।

ফখরুল বলেন, আমরা দেখছি কর্মসূচিতে জনম্পৃক্ততা বেড়েছে। আপনারা লক্ষ্য করেছেন যে, আমাদের সমাবেশগুলোতে যেটা ঢাকা শহরে হয়েছে, আগে জেলা-উপজেলায় হয়েছে, সেখানে জনগণের সম্পৃক্ততা অনেক বেড়েছে। আজকে বাংলাদেশের জনগণের মাঝে একটাই দাবি উপস্থিত হয়েছে যে, দিস গভমেন্ট মাস্ট গো।

গত ১০ আগস্ট থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজধানী ঢাকায় মহানগর উত্তর-দক্ষিণের উদ্যোগে ১৪টি সমাবেশ করেছে বিএনপি। লালবাগ জোনের সমাবেশটি স্থগিত এবং পল্লবী জোনের সমাবেশটি পুলিশি হামলায় পণ্ড হয়ে যায়।

বিভাগীয় গণসমাবেশ ছাড়াও ভোলা, নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জে পুলিশের গুলিতে নিহতদের স্মরণে আগামী ৬ অক্টোবর সকল মহানগরে এবং ১০ অক্টোবর সকল জেলায় শোক র‌্যালীর কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব।