মার্কিন দূতাবাসে ড্রোন হামলা: ভূপাতিত করা নিয়ে বিভ্রান্তি

সংগ্রহীত

মার্কিন দূতাবাসে ড্রোন হামলা: ভূপাতিত করা নিয়ে বিভ্রান্তি

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টিত গ্রিন জোনে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসে ড্রোন হামলা হয়েছে বলে একাধিক সংবাদ সূত্র খবর দিয়েছে। এ সময় দূতাবাস ভবনের নিরাপত্তা রক্ষায় স্থাপিত আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থেকে অন্তত চারবার ড্রোনগুলোকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ভোররাতে একাধিক ড্রোন মার্কিন দূতাবাসের আকাশে চক্কর দিতে থাকলে সেখানকার সাইরেনগুলো বেজে ওঠে এবং আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা থেকে সেগুলোকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। এ সময় গ্রিনজোনের নিকটবর্তী আল-কাররাদা, আল-জাদরিয়া ও আল-কাদিসিয়া এলাকা থেকে ওই গুলিবর্ষণের শব্দ শোনা যায়।

কোনো কোনো সূত্র বলেছে, গুলিবর্ষণ করে ড্রোনগুলোকে ভূপাতিত করা যায়নি। এই সূত্রগুলো বলেছে, ঘটনার সময় মার্কিন দূতাবাসের আকাশে কোনো বিস্ফোরণের দৃশ্য দেখা যায়নি।

তবে অন্য কযেকটি সূত্র দাবি করছে, অন্তত একটি ড্রোন ভূপাতিত হয়েছে।

ইরাকের সাবেরিন নিউজ জানিয়েছে, একটি বোমাভর্তি ড্রোন মার্কিন দূতাবাসের ভেতরে অবস্থিত সামরিক ভবনে আছড়ে পড়ে। অন্যদিকে শাফাক নিউজসহ কয়েকটি বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, তিনটি ড্রোন দিয়ে মার্কিন দূতাবাসে হামলা চালানো হয় যার সবগুলো বিধ্বস্ত হয়েছে। তবে এই সংঘর্ষের ঘটনায় কারো হতাহত হওয়ার বা সম্পদের ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ পাওয়া যায়নি।

 

এর আগে সোমবার ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলীয় আনবার প্রদেশে আমেরিকার সেনা ঘাঁটি আইন আসাদে এক ঝাঁক রকেট আঘাত হানে।

এদিকে ইরাকের প্রতিরোধ সংগঠনগুলো দেশটি থেকে সর্বশেষ মার্কিন প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়া অঙ্গীকার করেছে। সূত্র: পার্সটুডে।