মাশরাফিকেও দায়ি করছেন ই-অরেঞ্জের গ্রাহকরা

মাশরাফিকেও দায়ি করছেন ই-অরেঞ্জের গ্রাহকরা

.ই-অরেঞ্জের গ্রাহকরা বলেছেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা যেদিন থেকে এই প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে এসেছেন তাখন থেকে এই প্রতিষ্ঠানের অর্ডার ১০ গুন বেড়ে গেছে। এখন তিনি বলছেন, তার সঙ্গে চুক্তি জুলাই মাসে শেষ হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ই-অরেঞ্জ গ্রাহকরা বিক্ষোভ সমাবেশে এসব কথা বলেন৷

ই-অরেঞ্জ গ্রাহকরা বলছেন, আমাদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেখবো তাদের সিদ্ধান্তের জন্য৷ আমাদের টাকা ফেরত ও পণ্য সরবরাহের জন্য যদি কোনো সঠিক সিদ্ধান্ত না দেওয়া হয়, তবে ২০ সেপ্টেম্বর সকল গ্রাহকদের নিয়ে রাজপথে নামবো, অনশনে করবো।

গ্রাহকরা বলেন, ই-অরেঞ্জ শেষ কয়েকবার আমাদের বাইক ডেলিভারির সময় দিয়েও দেয়নি। বর্তমানে তাদের অফিস বন্ধ, কাস্টমার কেয়ার বন্ধ। তাদের সিইও বলছে আমি কোম্পানি বিক্রি করে দিয়েছি। সে আমাদের সামনে আসছে না। সে দেশে আছে, না নাই, তাও জানা নাই।

সমাবেশে ই-অরেঞ্জের প্রায় শতাধিক গ্রাহক উপস্থিত ছিলেন।