মিশা সওদাগরের শপথ পাঠ করানো নিয়ে মুখ খুললেন জায়েদ খান

জায়েদের বিষয়ে যা বললেন মিশা সওদাগর

মিশা সওদাগরের শপথ পাঠ করানো নিয়ে মুখ খুললেন জায়েদ খান

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন শেষ হয়েছে গত ২৮ জানুয়ারি। আর ফল ঘোষণা করা হয় ২৯ জানুয়ারি। ভোটের পর থেকে এই নির্বাচন নিয়ে যেন আলোচনা থামছেই না। ভোটের ফলাফল নিয়ে জল গড়াতে গড়াতে পৌঁছেছে আদালত পর্যন্ত।

এবার সবাই তাকিয়ে আছেন আদালতের দিকে। হয়তোবা আজকেই সমাধান হতে পারে এই সমস্যার।তবে আপিল বোর্ডের ফল ঘোষণার পর গত রোববার নায়িকা নিপুণসহ নির্বাচিতরা শপথ গ্রহণ করেন। আর সেই শপথে নবনির্বাচিত সভাপতিকে শপথ করা মিশা সওদাগর। শপথ অনুষ্ঠানে পরাজিত প্রার্থী মিশার উপস্থিতি চমকে দিয়েছে সবাইকে।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির শপথ অনুষ্ঠান থেকে নায়ক জায়েদ খান মুখ ফিরিয়ে নিলেও ঠিকই অংশ নেন মিশা। অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার পাঁচ মিনিট আগেই ভিড় ঠেলে সামনে আসেন এই খলনায়ক চলচ্চিত্রের প্রতি ভালোবাসা আর ভ্রাতৃত্ববোধ দেখিয়ে বাস্তবের নায়কে পরিণত হন মিশা।

তবে শপথ অনুষ্ঠানে মিশার উপস্থিতি নিয়ে এরইমধ্যে নানা গুঞ্জন শুরু হয়েছে। অনেকেই কাছেই প্রশ্ন তাহলে ‍কি মিশা-জায়েদ সম্পর্কে ফাটল ধরল, এতো দিনের মধুর সম্পর্ক কি তাহলে বিষাদে পরিণত হল।

এমন সব প্রশ্নের উত্তর দিলে নায়ক জায়েদ খান। শপথ অনুষ্ঠানে মিশার উপস্থিতিকে সমর্থনই করলেন তিনি। জানালেন, শপথ অনুষ্ঠানে গিয়ে ঠিক কাজটাই করেছেন মিশা সওদাগর।

দেশের একটি গণমাধ্যমে এনিয়ে কথা বলেছেন জায়েদ। তিনি বলেন, শপথে গিয়ে মিশা ভাই ভালো কাজ করেছেন। নিজের জায়গা থেকে সভাপতিকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন। একজন শিল্পীর যেটা কাজ, তিনি সেটাই করেছেন। তিনি নায়কের মতো কাজ করেছেন। এটাই শিল্পীর দায়িত্বশীলতা।

বর্তমান পরিস্থিতির কথা তুলে ধরে জায়েদ বলেন, অন্যরাও হেরে গিয়ে মিশা ভাইয়ের মতো কাজ করলে আজ শিল্পীদের নিয়ে মানুষ প্রশংসা করতেন। আমাদের আদালতে যেতে হতো না। তাহলে শিল্পী সমিতি নিয়ে মানুষও হাসাহাসি করতে পারতেন না। আমি মিশা ভাইকে সাধুবাদ জানাই।