মুক্তিই হয়নি তবুও ‘বাহবলি টু’র রেকর্ড ভাঙছে ‘ট্রিপল আর’

সংগ্রহীত

মুক্তিই হয়নি তবুও ‘বাহবলি টু’র রেকর্ড ভাঙছে ‘ট্রিপল আর’

বহুল আলোচিত সিনেমা বাহুবলি ও বাহুবলি টু এই দুই সিনেমাকে বলা হয় এ যাবত কালের সবচেয়ে বড় বাজেটের ছবিগুলোর মধ্যে অন্যতম। ছবি দুটি সফলতাও পেয়েছে। আয়ের দিক থেকে একের পর এক রেকর্ড ভেঙেছে।

তবে এবার বিগ বাজেটের ছবি বাহুবলি টু কেও ছাড়িয়ে যাচ্ছে তেলেগু সিনেমার জনপ্রিয় দুই অভিনেতা জুনিয়র এনটিআর ও রাম চরণ অভিনীত ‘রুদ্রম রণম রুধিরাম’ বা ‘ট্রিপল আর’ সিনেমা। এই একসঙ্গে পর্দায় হাজির হচ্ছেন এই দুই তেলেগু সুপার হিরো।

‘বাহুবলি’ সিনেমাখ্যাত এস এস রাজামৌলি পরিচালিত সিনেমার জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছেন দর্শক। বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমাটির জন্য পরিবেশকদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের প্রস্তাবও পাচ্ছেন নির্মাতারা। এদিক থেকে ‘বাহুবলি টু’র রেকর্ড ভাঙছে সিনেমাটি।

এ প্রসঙ্গে একটি সূত্র পিংকভিলা ডটকমে বলেন, ‘দক্ষিণের বিভিন্ন বক্স অফিস থেকে সিনেমার স্বত্বের জন্য পরিবেশকদের কাছে থেকে ৩৪৮ কোটি রুপির প্রস্তাব পেয়েছে ‘ট্রিপল আর’ টিম। তেলেগু সিনেমার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় চুক্তি হতে যাচ্ছে এটি। মুক্তির আগে ব্যবসার দিক থেকে এটি ‘বাহুবলি টু’ সিনেমার চেয়ে এগিয়ে। দক্ষিণের অঞ্চলগুলোতে বাহুবলি টু আয় করেছিল ২১৫ কোটি রুপি।’

পিংকভিলা ডটকমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দক্ষিণের বিভিন্ন বক্স অফিসে ‘ট্রিপল আর’ সিনেমার স্বত্ব বিক্রি হয়েছে: অন্ধ্রপ্রদেশ ১৬৫ কোটি রুপি, নিজাম ৭৫ কোটি রুপি, তামিলনাড়ু ৪৮ কোটি রুপি, কর্ণাটক ৪৫ কোটি রুপি, কেরালা ১৫ কোটি রুপি। সবমিলিয়ে ৩৪৮ কোটি রুপি।

জুনিয়র এনটিআর ও রাম চরণ ছাড়াও সিনেমাটিতে অভিনয় করছেন বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট ও অভিনেতা অজয় দেবগন। সিনেমাটির হিন্দি সংস্করণের স্বত্ব নিয়েছে এএ ফিল্মস। জানা গেছে, ১০০ কোটি রুপিতে এই স্বত্ব বিক্রি হয়েছে। সবমিলিয়ে বিশ্বব্যাপী সিনেমাটির স্বত্ব বিক্রি বাবদ নির্মাতাদের আয় ৫০০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে যাবে বলে বক্স অফিস বিশ্লেষকদের ধারণা।

‘ট্রিপল আর’ প্রযোজনা করছেন ডিভিভি দানায়া। সিনেমাটির বাজেট ৪০০ কোটি রুপি। আগামী ১৩ অক্টোবর মুক্তি পাবে এটি।