যেসব উপসর্গে বুঝবেন আপনিও ওমিক্রনে আক্রান্ত

যেসব উপসর্গে বুঝবেন আপনিও ওমিক্রনে আক্রান্ত
সার্স কোভিড-২ বৃদ্ধি পেলেই বাড়বে ওমিক্রন- এখন পর্যন্ত এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ বর্তমানে করোনার যত ভ্যারিয়ান্ট পাওয়া যাচ্ছে, তার অন্তত ৮০ শতাংশ ওমিক্রন। এখন প্রশ্ন, আপনি ওমিক্রন আক্রান্ত কি না তা বুঝবেন কীভাবে?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ওমিক্রন ভ্যারিয়ান্টের নিজস্ব কিছু বৈশিষ্ট্য আছে। যেটা দেখে আক্রান্ত ব্যক্তি প্রাথমিক ইঙ্গিত পেতে পারেন। তবে ইঙ্গিত যথেষ্ট নয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, জিনোম সিকোয়েন্সিংই আসল কথা।

তবুও কিছু উপসর্গ সম্পর্কে ধারণা নিয়ে রাখুন যাতে বুঝতে পারেন আপনি ওমিক্রন আক্রান্ত কি না। বিশেষজ্ঞদের মতে উপসর্গগুলো হলো-

* হঠাৎ গলার স্বর বদলে যাওয়া

* গলা ব্যথা

* ভীষণ ক্লান্তিভাব

* অবসাদ

* ঠান্ডা লেগে যাওয়া

* শুকনো কাশি

* মাথা যন্ত্রণা

তবে ওমিক্রন আক্রান্তদের স্বাদ এবং গন্ধের অনুভূতির কোনো বদল হয় না। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের মতে, সর্দিতে যদি নাক ভিজে যায় তবে ‘ওমিক্রন’ সংক্রমণের তেমন ভয় নেই। তবে শুকনো কাশি এবং স্বরভঙ্গ হলে অবশ্যই কোভিড পরীক্ষা করাতে হবে। কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ হলে দেরি না করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সরাসরি নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ে পাঠানো হবে।

এদিকে বিশ্বব্যাপী করোনার পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় শনিবার (১ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন আরও ৫ হাজার ৬২০ জন। অন্যদিকে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ লাখ ৩১ হাজার ২৯৪ জন।

এর আগে শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) বিশ্বে রেকর্ডসংখ্যক লোক আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ সময় ১৮ লাখ ৮৬ হাজার ৯১৫ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছে ওয়ার্ল্ডওমিটার। আর মারা গিয়েছিলেন ৬ হাজার ৭৫৮ জন।


বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ কোটি ৮৫ লাখ ১১ হাজার ৫৫৯ জন এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪ লাখ ৫২ হাজার ৮৯৩ জনে। আর সুস্থ হয়েছেন ২৫ কোটি ৩৬ লাখ ৮৫ হাজার ৪৭৩ জন।