রাজধানীতে হঠাৎই বেড়েছে চুরি-ছিনতাই

সংগ্রহীত

রাজধানীতে হঠাৎই বেড়েছে চুরি-ছিনতাই

গত তিন বছরে রাজধানীতে ছিনতাই হয়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। এসব ছিনতাইয়ের ঘটনায় প্রাণ গেছে বেশ কয়েকজনের আর আহতও হয়েছেন অনেকে। পুলিশের তথ্যমতে গেল বছরে রাজধানীর ৫০ থানায় ছিনতাইয়ের মামলা হয়েছে ১৭৬টি। 

রাজধানীর এক সড়কে একটি ঘটনা। বাস থেকে মূল্যবান জিনিস ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার এমন দৃশ্য কম বেশি সবারই দেখা। অনেকে তাদের শিকারও হয়েছেন। এ দৃশ্য প্রমাণ করে রাজধানীতে আবারো বেপরোয়া ছিনতাইকারী চক্র। 

একটি বেসরকারি ব্যাংকের মতিঝিল শাখায় কাজ করেন রায়হানা বাতিন। ৪ জানুয়ারি অফিস শেষে বাসায় ফেরার সময় ছিনতাইকারির খপ্পরে পরেন। পড়ে থাকা সোনার কানের দুল ছিনিয়ে নিতে কান ছিড়ে যায় তার। এ ঘটনা তার মধ্যে এতটাই আতঙ্ক সৃষ্টি করে, এরপর থেকে সন্ধ্যে হলে বাড়ি ফিরতেও ভয় পান।

গেল মাসে হাইকোর্টের সামনে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারান সেগুনবাগিচার ডিশ ব্যবসায়ী হামিদুল ইসলাম। এছড়া শাহাদাৎ হোসেন নামের এক ব্যক্তি গেল মাসে ডেমরা থেকে মিরপুর যাওয়ার পথে বাসেই যাত্রীবেশী ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে হারান সব। 

মহানগর পলিশের তথ্য বলছে, গেল ৩ বছরে ছিনতাইয়ের ঘটনা বেড়েঠে সোয়া দুইগুণ। তাদের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০১৮ সালে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় ছিনতাই মামলা হয় ৭৮টি। ২০১৯ সালে ১১৯টি। আর গেল বছর এর সংখ্যা দাঁড়ায় ১৭৬টিতে।

অবশ্য পুলিশ বলছে, নগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রতিনিয়তই কাজ করে যাচ্ছেন। ছিনতাইকারীদের ধরতে অভিযান চলমান বলেও জানান পুলিশের কর্মকর্তারা।