রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ, ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

রাজাপুরে বিয়ের প্রলোভনে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ, ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা

ঝালকাঠির রাজাপুরে ১৭ বছর বয়সী স্কুল পড়ুয়া নবম শ্রেনীর এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের ঘটনায় ওই ছাত্রী ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রাবার গভীর রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মো. রাজু হাওলাদারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন (মামলা নম্বর-০৬)। রাজু হাওলাদার উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নের নলবুনিয়া এলাকার মো. হারুন হাওলাদারের ছেলে।

মামলায় ছাত্রীর বাবা অভিযোগ করেন, স্কুলছাত্রী ও রাজু একই বাড়িতে বসবাস করেন। রাজু ওই ছাত্রীকে বিয়েসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দৈহিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এতে ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। স্কুলছাত্রী বিষয়টি রাজুকে জানালে রাজু তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে।

বর্তমানে সে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় লোকলজ্জার ভয়ে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, ঘটনা জানাজানি হলে কয়েক মাস ধরে বাচ্চা নষ্ট করার জন্য ওই ছাত্রীকে ও তার পরিবারকে চাপ দেয়। লোকলজ্জার ভয়ে ওই ছাত্রী ও তার পরিবার অসহায় হয়ে পড়ে। এমনকি ওই ছাত্রীকে বিয়ের জন্য রাজু ও তার পরিবারকে বললে ওই ছাত্রী ও তার পরিবারকে এলাকা ছাড়া করার হুমকি দেয় ধর্ষণে অভিযুক্ত ও তার প্রভাবশালী আত্মায়ী স্বজন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজাপুর থানার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, তার বাবার আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলা রেকর্ড করে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে তার জবানবন্দি রেকর্ড ও ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে।

তবে অভিযুক্ত আসামী রাজু পলাতক রয়েছে। আসামি রাজুকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে।

মো. নাঈম ঝালকাঠি প্রতিনিধি